টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রাম বন্দরে ১১ জাহাজকে জরিমানা

চট্টগ্রাম, ২৭ মার্চ (সিটিজি টাইমস) ::  চট্টগ্রাম বন্দর এলাকায় এগারো ছোটবড় জাহাজকে বিভিন্ন অভিযোগে সাড়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

চট্টগ্রাম বন্দরের নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট আবুল হাশেম রবিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত টানা এ অভিযান চালিয়ে জরিমানা আদায় করেন।

অতিরিক্ত পণ্য বোঝাই, নিরাপত্তা সরঞ্জাম না রাখাসহ বিভিন্ন অপরাধে এসময় ৯ লাখ ৩০ হাজার টাকা বকেয়া আদায় করা হয়।

বন্দরের নিজস্ব আনসার বাহিনীর সহায়তায় পরিচালিত অভিযানে হাইড্রোগ্রাফি ও হার্বার বিভাগের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ আবুল হাশেম জানান, ওভারলোডিং করা, মাস্টার ও ড্রাইভারের যথাযথ সার্টিফিকেট না থাকা, পরিবেশ দূষণ করা, নিরাপত্তা সরঞ্জাম না রাখা ও ফায়ার এক্সটিংগুইসার না রাখা ও মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়া, বে-ক্রসিং ও প্লাইং পারমিশন বিহীন লাইটারেজ ও ফিশিং জাহাজ পরিচালনা করাসহ বিভিন্ন অপরাধে ১১ জাহাজকে ৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া ৯ লাখ ৩০ হাজার টাকা বকেয়া পোর্ট ডিউজ আদায় করা হয়েছে।

জরিমানা করা জাহাজগুলো হলো- এফ ভি ফিস্মার্ক, এফ ভি আইয়ুব মনোয়ারা-২, এফ ভি ওশান মুমু, এফ ভি লংফিন-২, এফ ভি ইউরোস্টার-১, এফ ভি জমজম-১, এফ ভি হাফেজ বাড়ি, এফ ভি মদীনা-১, এফ ভি ফ্লেমিঙ্গু, এফ ভি বাটা, এফ ভি গরীবে নেওয়াজ।

এ ছাড়াও ফজল মাঝিকে জাহাজে অবৈধভাবে পানি বিক্রির দায়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- বন্দর কর্তৃপক্ষ ২০১৫ সালের ১৩ মে থেকে ২৭ মার্চ পর্যন্ত ১০ মাসে ৮০ লাখ ২৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে। এ অভিযানে ২৭ লাখ ২৭ হাজার ৬৬২ টাকা পোর্ট ডিউজ হিসেবে বকেয়া আদায় করা হয়েছে। এছাড়াও ১০ মাসে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান কর্তৃক অবৈধভাবে নির্মিত ৩৫৭ টি ছোট-বড় স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রায় ৮ একর ভূমির দখল উদ্ধার করা হয়। যার বাজার মুল্য প্রায় ২০০ কোটি টাকা। বন্দর সংরক্ষিত এলাকায় অবৈধ অনুপ্রবেশসহ অন্যান্য অপরাধের দায়ে এই সময়ে ১০ জনকে জরিমানা ও ২৪ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

মতামত