টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে মানিকছড়িতে ঋণমুক্ত সনদ বাণিজ্যের অভিযোগ

আবদুল মান্নান
মানিকছড়ি(খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি 

চট্টগ্রাম, ২৩ মার্চ (সিটিজি টাইমস) ::খাগড়াছড়ির বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সর্বত্রই প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র কেনার হিড়িক পড়েছে। আর প্রার্থীতা বৈধ রাখতে প্রার্থীরা বিভিন্ন ব্যাংক ও সংস্থায় ঋণ করলেও টাকা ছাড়া ঋণমুক্ত সনদ মিলছে! ফলে শুরু হয়েছে সনদ বাণিজ্য।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগামী ২৩ এপ্রিল খাগড়াছড়ির ৩৬টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আর এ নির্বাচনকে ঘিওে এখন সর্বত্রই চলছে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহের পালা। এ উপলক্ষে সম্ভাব্য প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র বৈধ রাখতে ব্যাংক ও সংস্থায় ঋণ পরিশোধে হুমড়ি খেয়ে পড়ছে। কিন্তু ঋণ পরিশোধ করলেও টাকা ছাড়া ঋণমুক্ত সনদ মিলছেনা। গত ২৩ মার্চ মানিকছড়ি নির্বাচন অফিসে কথা হয় সংরক্ষিত ওয়ার্ড ১,২,৩ এর জন্য মনোনয়পত্র নিতে আসা শিউলি বেগম ও ৭,৮,৯ ওয়ার্ডের মনোনয়ন প্রত্যাশি মনোয়ারা বেগম জানান, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংক লিমিটেড ,যুব উন্নয়ন, পল্লী উন্নয়ন (বিআরডিবি) ও একটি বাড়ী,একটি খামার অফিসসহ বিভিন্ন দপ্তরে ঋণ পরিশোধ করলেও কাউকেই টাকা ছাড়া ঋণমুক্ত সনদ দিচ্ছে না। ১০০-৫০০ টাকা পর্যন্ত ঘুষ দিয়ে সনদ নিতে হচ্ছে। এ সময় উপজেলা নির্বাচন অফিসার সৈয়দা সাদিকা সুলতানা ঋণমুক্ত সনদের নামে প্রার্থীদের নিকট থেকে টাকা নেওয়ার বিষয়টি শুনেছেন বলে স্বীকার করে বলেন, প্রার্থীদেরকে বকেয়া ঋণ পরিশোধ করতে বলা হয়েছে। কিন্তু মনোনয়নপত্রের সাথে ঋণমুক্ত সনদ জমা বাধ্যতামূলক করা হয়নি। ঘটনার সত্যতা থাকলেও ব্যাংকসহ কোন দপ্তর ঋণমুক্ত সনদ প্রদানে টাকা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেনি।

মতামত