টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

কাঁদলেন মাশরাফি

spচট্টগ্রাম, ২০ মার্চ (সিটিজি টাইমস) ::  অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগে আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট থেকে সাময়িক নিষিদ্ধ করা হয়েছেন ফাস্ট বোলার তাসকিন আহমেদ ও স্পিনার আরাফাত সানি। সানির ব্যাপারটা সবাই মেনে নিলেও তাসকিনকে নিষেধাজ্ঞা করায় সবাই বিস্মিত, হতাশ। তাসকিন চাক করেন-এটা বিশ্বাস করেন না কোনো ক্রিকেটারই। যে প্রক্রিয়ায় তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে, সেটাও আইসিসির আইন বিরুদ্ধ।

অনেকের মতো এ ব্যাপারে ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করলেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তুজা। ব্যাঙ্গালোরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে আজ মাশরাফি বলেন, ‘তাসকিনকে নিয়ে আমরা নির্ভার ছিলাম। কিন্তু তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে যে প্রক্রিয়ায় তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে, সেটা ঠিক নয়। আমি বিশ্বাস করি ও মনে করি তার বোলিং অ্যাকশনে কোনো সমস্যা নেই। ব্যক্তিগতভাবে আমি মনি করি, তাসকিনের ওপর অবিচার করা হয়েছে।’

তাসকিন প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে আবেগে কেঁদে ফেলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। কনফারেন্স রুমে উপস্থিত বাংলাদেশি সাংবাদিকরাও এ সময় চোখের পানি সংবরণ করতে পারেননি। মাশরাফির সঙ্গে কেঁদে ফেলেন তারাও।

ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হলেও পুরো সংবাদ সম্মেলনে দারুণ মন খারাপ ছিল মাশরাফির। তিনি আশা করেন, আইসিসি তাসকিনের ব্যাপারে সুবিচার করবে। বলেন,‘ আপাতত ব্যাপারটা মেনে নেয়া ছাড়া কিছুই করার নেই। তবে বিষয়টা নিয়ে আমরা পর্যালোচনা করছি। বিসিবি আইসিসির সঙ্গে বসে এ ব্যাপারে ফয়সালা করবে। আশা করি তাসকিন ন্যায্য বিচার পাবে।’

তাসকিনের ব্যাপারটা ভালো চোখে না দেখলেও সেই আইসিসির ওপরই আস্থা রাখছেন মাশরাফি। বলেন,‘ আইসিসি তরুণদের সবসময় প্রমোট করে থাকে। আশা করি তাসকিনের ব্যাপারেও এগিয়ে আসবে আইসিসি।’

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত