টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

১৫ লাখ কর্মী নেয়ার সম্ভাবনা শেষ হয়নি

চট্টগ্রাম, ১৭ মার্চ (সিটিজি টাইমস) ::  মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী দাতুক সেরি রিচার্ড রিয়ট বলেছেন, বিদেশি কর্মী নেয়ার ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলে ফের সচল হবে ১৫ লাখ কর্মী নেয়ার বিষয়ে করা বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া চুক্তি।

দেশটির পত্রিকা ‘দ্য স্টার’কে এ কথা বলেন মালয়েশীয় মন্ত্রী।

দাতুক সেরির বক্তব্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ থেকে ১৫ লাখ কর্মী নেয়ার যে সম্ভাবনা রয়েছে, তা শেষ হয়ে যায়নি।

দেশটির পার্লামেন্ট লবিতে ‘দ্য স্টার’কে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদমন্ত্রী বলেন, শুধু বাংলাদেশ নয়, বিদেশি কোনো শ্রমিকই আপাতত নেয়া হবে না এবং এই নিষেধাজ্ঞা অনির্দিষ্টকালের জন্য নয়। আর বাংলাদেশের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে পাঁচ বছরের জন্য। সাময়িক আরোপিত নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলেই বাংলাদেশের সঙ্গে করা চুক্তি ফের চালু হবে।

দাতুক সেরির ভাষায়, “এই স্থগিতাদেশ যখন উঠে যাবে তখনো এই চুক্তি বৈধতা হারাবে না। আমরা বিদেশি শ্রমিক নেয়ার জন্য কেবল বাংলাদেশ নয়, আরও সাতটি দেশের সঙ্গে চুক্তি সই করেছি।”

১২ মার্চ মালয়েশিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী আহমেদ জাহিদ হামিদি সব ‘সোর্স কান্ট্রি’ থেকেই কর্মী নেয়া স্থগিত রাখার ঘোষণা দেন। এই সিদ্ধান্তের ফলে ১৫ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক নেয়ার পরিকল্পনা স্থগিত হয়ে যায়।

এর আগে ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে দুই দেশের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হয়। এর এক দিন পর ১৯ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ার সরকার জানায়, বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে আপাতত কোনো কর্মী নেবে না তারা।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশ মালয়েশিয়া বাংলাদেশের জনশক্তি রপ্তানির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বাজার। বর্তমানে প্রায় ছয় লাখ বাংলাদেশি সেখানে বিভিন্ন পেশায় নিযুক্ত আছেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত