টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রোগীদের জিম্মি করে ধর্মঘট করা যাবে না: নাসিম

চট্টগ্রাম, ০৫ মার্চ (সিটিজি টাইমস) : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, রোগীদের জিম্মি করে ধর্মঘট করা যাবে না। চিকিৎসায় আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। চিকিৎসকদের ধৈর্য্যধারণ ও মানবতার দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে রোগীদের সাথে ভাল ব্যবহার ও চিকিৎসা দিতে হবে।

শুক্রবার রাতে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে ন্যাশনাল কনফারেন্স ও লাইভ ওয়ার্কশপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩ আসনের এমপি মাহবুব-উল-আলম হানিফ।

তিনি আরও বলেন, যে গণতন্ত্র মানুষকে পুড়িয়ে মারে, কষ্ট দেয় সে গণতন্ত্র আমরা বিশ্বাস করি না। যে গণতন্ত্র মানুষকে বাঁচতে শেখায় সে গণতন্ত্র আমরা বিশ্বাস করি। আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনা সে কাজটিই করছেন। পৃথিবীর কোনো দেশে কোনো নেতৃত্ব দীর্ঘ মেয়াদী ক্ষমতায় থাকা ছাড়া দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেনি।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের ডাক্তাররাই মুমূর্ষ ও জটিল রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে তাদের জীবন রক্ষা করছেন। মাগুরায় মাতৃগর্ভে গুলিবিদ্ধ শিশুকে আমাদের ডাক্তরাই চিকিৎসা দিয়ে জীবন রক্ষা করেছেন। এছাড়া বিরল রোগে আক্রান্ত বৃক্ষমানব রোগীকে আমাদের ডাক্তরাই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সফল অপারেশন ও চিকিৎসা দিচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই বিরল রোগীর চিকিৎসার সমস্ত ব্যয়ভার বহন করছেন।

KUSHTIA-HELTH-MINISTER
তিনি চিকিৎসকদের উদ্দেশ্যে বলেন, সরকারি হাসপাতালে রোগী ফেরত দেয়ার কোনো সুযোগ নেই। গ্রামের সহজ-সরল ও দরিদ্র রোগীদের যথাসম্ভব সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার জন্য তিনি চিকিৎসকদের নির্দেশ প্রদান করেন। রোগেদের চিকিৎসার সময় ডাক্তারদের অনিচ্ছাকৃত কোনো ভুলের কারণে ডাক্তারদের অযথা হয়রাণি ও হামালা করা যাবে না। এছাড়া চিকিৎসকদের কল্যানে চিকিৎসক সুরক্ষা আইন প্রনয়ণ করা হবে বলেও তিনি জানান।

সোসাইটি অব ল্যাপারোসকপিক সার্জনস বাংলাদেশ এর সভাপতি অধ্যাপক ডাক্তার এ এইচএম তৌহিদুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএমএ সভাপতি অধ্যাপক ডাক্তার মাহমুদ হাসান, অধ্যাপক ডাক্তার এমএ আজিজ, অধ্যাপক ডাক্তার রশিদ-ই-মাহবুব, অধ্যাপক ডাক্তার এমএ সালাম, অধ্যাপক রোকেয়া সুলতানা, অধ্যাপক সামশাদ বেগম, কুষ্টিয়া মডিকেল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডাক্তার জামাল উদ্দিন মোল্লা, সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাক্তার ইফতেখার মাহমুদ, কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের সার্জারী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডাক্তার এসএম মুস্তানজিদ, অধ্যাপক ডাক্তার সানোয়ার হোসেন, কুষ্টিয়া এবিএম শাখার সাধারণ সম্পাদক ডাক্তার আমিনুল হক রতন প্রমুখ। ওয়ার্কশপে সারা দেশ থেকে সার্জারী ও গাইনী বিভাগের তিন শতাধিক সার্জন অংশগ্রহণ করেন।

এ উপলক্ষে শনিবার দিনব্যাপী ওয়ার্কশস চলবে এবং কুষ্টিয়া ২৫০ বেড জেনারেল হাসপাতালে রোগীদের দেহে ল্যাপারোসকপিক সার্জারির দৃশ্য সরাসরি প্রজেক্টেরের মাধ্যমে অংশ গ্রহণকারী সার্জনদের সামনে উপস্থাপন করা হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত