টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বোয়ালখালিতে সেতুর গার্ডার ধসে নিখোঁজ শ্রমিক, শুরু হয়নি উদ্ধার তৎপরতা

ctg-news-(1)চট্টগ্রাম, ২৯ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরাকান সড়কের বোয়ালখালির মিলিটারি সেতুর গার্ডার ধসে হাশেম (২৮) নামের এক নির্মাণশ্রমিক খালের পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়েছেন। দুর্ঘটনার পর ২০ ঘন্টা পার হলেও শুরু হয়নি উদ্ধার তৎপরতা।

শ্রমিকরা জানান, রবিবার বিকেল ৫টার দিকে পুরানো সেতুটি ভাঙার কাজ করার সময় হঠাৎ বিশাল গার্ডার ভেঙে খালের পানিতে ডুবে যান হাশেম। তিনি লোহাকাটা শ্রমিক এবং স্থানীয় শ্রমিক লীগের সদস্য ছিলেন।

চট্টগ্রাম মহানগর বায়োজিদ থানা শ্রমিক লীগের সভাপতি বাদশা জানান, নিখোঁজ হাশেম নওগাঁ সদর উপজেলার চকনদীকুল গ্রামের আবদুল গফুরের ছেলে। ১৫ দিন আগে নাছির মাঝির অধীনে সেতু ভাঙার কাজে যোগ দেন তিনি।

দুর্ঘটনার সময় হাশেমের সঙ্গে থাকা সহকর্মী শরীফুল ইসলাম জানান, হাশেমসহ নয় শ্রমিক পুরানো সেতুটির গার্ডার ভাঙার কাজ করছিলেন। হাশেম তখন দক্ষিণ প্রান্তে ছিলেন। এ সময় বোয়ালখালী খালে জোয়ারের স্রোতও ছিল বেশি। বিকেলে হঠাৎ বিকট শব্দে গার্ডার ধসে খালে পড়ে যায়। তারা আটজন খাল থেকে উঠে আসতে সক্ষম হলেও হাশেম নিখোঁজ হন। ধারণা করা হচ্ছে, হাশেম ধসে পড়া গার্ডারের নিচে চাপা পড়ে আছে।

ঘটনাস্থল থেকে চট্টগ্রাম মহানগর ভবন ভাঙা ও লোহা কাটা শ্রমিক লীগের সভাপতি সৈয়দ ওমর ফারুক  জানান, রবিবার বিকেলে এ দুর্ঘটনা ঘটলেও এখনও (সোমবার দুপুর) কোনো উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। তারা স্থানীয় থানায় বিষয়টি অবহিত করেছেন।

চট্টগ্রাম মহানগর ভবন ভাঙা ও লোহা কাটা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক জানে আলম জানান, হাশেমের পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। তারা নওগাঁ থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন। নাছির এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান এ সেতু ভাঙার কাজ করছিল।

এ ব্যাপারে বোয়ালখালী খানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সালাহ উদ্দীন চৌধুরী বলেন, উদ্ধার তৎপরতার জন্য ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে ক্রেন দিয়ে ধসে পড়া গার্ডার তোলার জন্য বলেছিলাম। ক্রেন না পাওয়ায় এখনও উদ্ধার প্রক্রিয়া শুরু করতে পারেনি বলে তারা জানান।

মতামত