টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

‘শহীদের সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তোলা সংবিধান অবমাননা’

CIUB_seminerচট্টগ্রাম, ২৫ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তোলা সংবিধান অবমাননার সামিল বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে চট্টগ্রাম ইনডিপেন্ডন্ট ইউনিভার্সিটিতে আইন অনুষদের যাত্রা শুরু উপলক্ষে ‘ভিশন ফর গ্লোবাল এন্ড সোশ্যালি রেসপন্সিভ লিগ্যাল এডুকেশন’ শীর্ষক সেমিনারে এ্ই মন্তব্য করেন তিনি।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বাংলাদেশের আইন এখন ধনী বান্ধব এবং গরীবের বিরোধি হয়ে গেছে, আমাদের সমাজের চারিদিকে এখন এত রাজা-রানী আছে যে তাদের সামাল দেয়া কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, ‘যে আইন ব্যবস্থা সাধারণ জনগনের অধিকার রক্ষা করতে পারেনা এবং যেসব আইনজীবি নিরীহ জনগনের অধিকার রক্ষা না করে শুধু মক্কেলে পকেটের দিকে তাকিয়ে থাকে তাদের ধিক্কার জানাই।’

সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তোলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রের কতগুলো জিনিষ থাকে যেটা হচ্ছে ঐতিহাসিক সত্য, জাতি ইতিহাসের অংশ হিসেবে যেগুলোকে স্বীকার করে থাকে এবং সত্য হিসেবে গ্রহন করে থাকে।’

তিনি আরো বলেন, ‘সেই স্বীকৃত ইতিহাসকে জাতীয় স্বার্থে, রাষ্ট্রের স্বার্থে এবং জাতীয় ঐক্যের স্বার্থে কখনো প্রশ্নবিদ্ধ করা যায়না এবং যেখানে সংবিধানে শহীদদের আত্মত্যাগের কথা উল্লেখ করা আছে আর সে শহীদদের ব্যপারে প্রশ্ন তোলা প্রকারন্তরে সংবিধানকে অবজ্ঞা এবং লংঘন করা হয়।’
এদিকে ডেইলি স্টার পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনামের বিরুদ্ধে মামলা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অতি উৎসাহিত হয়ে কোন কোন ব্যক্তি এই কাজটি করতে পারে, কিন্তু রাষ্ট্র কর্তৃক কোন কিছু করা হয়নি।’

মাহফুজ আনাম অসত্য বিকৃত তথ্য প্রকাশ করে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে মহাত্মের পরিচয় দিয়েছেন তবে এসব বিকৃত তথ্য প্রকাশের ফলে যারা হয়রানির স্বীকার হয়েছে তাদের প্রতিকারের কথাও ভেবে দেখা উচিৎ, উল্লেখ করেন মানবাধিকার চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘আশ্চর্য লাগে যখন কোন বিদেশি সংস্থা সরকারের উদ্দেশ্যে বলে যে মামলা গুলো প্রত্যাহার করে নিতে, অথচ ব্যক্তি যদি মামলা করেন সেখানে একটি রাষ্ট্র বা সরকারে কিছু করার থাকে না।

সেমিনারে আরো বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম ইনডিপেন্ডন্ট ইউনিভার্সিটি এর ভাইস চ্যান্সেলর ড. ইরশাদ কামাল খান, নেপালের প্রাক্তন আইনজীবি ড. যুবরাজ সেংগ্রোলা, প্রফেসর জাকির হোসেন সহ প্রমুখ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত