টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফটিকছড়িতে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ: গ্রেফতার ১

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ২৩ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) : চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে এক মাদ্রাসা ছাত্রী সিরিজ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। দু দফা ধর্ষণের পর তৃতীয় দফায় ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে মোবাইলে ধারণ করা ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেয় ধর্ষক জাহিদ।

উপজেলার জাফত নগর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার মামলা দায়েরর পর পুলিশ ধর্ষক জাহেদুল আলম জাহিদ (৪২) কে গ্রেফতার করেছে।

ফটিকছড়ি থানার জাফত নগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পুলিশ পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেন ধর্ষণের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পাশাপাশি বাড়ী হওয়ায় স্থানীয় ইয়াবা আশক্ত যুবক জাহিদের কু নজর পড়ে মাদ্রাসা পড়ুয়া তার চাচাতো বোন ফারহানার (ছদ্ম নাম) উপর। ফারহানা স্থানীয় মাদ্রাসার ৮ম শ্রেণির ছাত্রী। তার বাবা একজন দিনমজুর।

মামলার বিবরণের বরাত দিয়ে এস আই দেলোয়ার বলেন, গত ২৩ এবং ২৬ জানুয়ারি জাহিদ ফারহানাকে দু দফা ধর্ষণ করে। চা বানিয়ে দেয়ার কথা বলে তার ঘরে ডেকে নিয়ে এ ঘটনা ঘটায়। এসময় তার নগ্ন ছবি মোবাইলে ধারণ করে রাখে। এরপর তৃতীয় দফা ধর্ষণের প্রস্তাব দেয় জাহিদ। কিন্তু ফারহানা তাতে রাজি না হওয়ায় মোবাইলে ধারণ করা ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়ার ভয় দেখায়। পরে ফারহানা বাধ্য হয়ে এ ঘটনা তার পরিবারকে জানায়। এবং এলাকায় তা জানাজানি হয়।

পরে তার বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় চেয়ারম্যান আবদুল হালিম বিষয়টি আপোষ মিমাংসার চেষ্টা করে। তাতে সমস্যা সমাধান না হওয়ায় মঙ্গলবার ইউছুফ বাদী হয়ে ফটিকছড়ি থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। মামলা নং ১০/০২,২০১৬

স্থানীয় চেয়ারম্যান আবদুল হালিম বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ঘটনাটি স্থানীয় ভাবে মিমাংসার প্রচেষ্টা করা হয়েছিল। তা না হওয়ায় মেয়ের বাবা থানায় মামলা করার পর পুলিশ জাহেদকে আটক করেছে।

মতামত