টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চবিতে শিক্ষার্থীকে মারধর করল সিএনজি চালক

চবি প্রতিনিধি

চট্টগ্রাম, ২৩ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) তুষার নামে এক সাধারণ শিক্ষার্থীকে বেধড়ক মারধর করেছে সিএনজি অটোরিক্সা চালক।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর দেড়টার দিকে চট্টগ্রাম-হাটহাজারী রোডের এক নং গেইট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরো পয়েন্ট থেকে এক নম্বর গেইটে যাওয়ার জন্য সিএনজিতে উঠার জন্য অপেক্ষার সময় একটি সিএনজিটি তার পায়ে চাপা দেয়। এতে তুষার সিএনজি ড্রাইভারকে দেখিয়ে চালানোর জন্য ধমক দেয়।পরে সিএনজি করে এক নম্বরে এলাকায় পৌছালে সিএনজি চালক তুষারকে একা পেয়ে মারধর করে। তাকে মারার সময় সায়ন নামে এক ছাত্রলীগ কর্মী তাকে মারধরের কারন জানতে চাইলে তাকেও কয়েকজন মিলে মারধর করে।
এ বিষয়ে তুষার বলেন, সিএনজিতে জায়গা না পেয়ে পরের একটি সিএনজি জন্য অপেক্ষা করছিলাম। প্রথম সিএনজিটি অতিক্রম করার সময় পা চাপা দিলে আমি তাকে দেখে চালানোর কথা বলি। পরে কোন কারন ছাড়াই আমাকে তারা মারাধর করে।
খবরটি ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে ছাত্রলীগের কয়েকজন সিনিয়র নেতৃবৃন্দ বিষয়টি সমাধান করতে এক নম্বরে গেলে তাদের ইটপাটকেল মেরে ধাওয়া দেয় সিএনজি অটোরিক্সা চালকরা। পরে ছাত্রলীগ কর্মীরাও জিরো পয়েন্ট থেকে সিএনজিতে ধাওয়া দিলে সিএনজি অটোরিক্সা চালকরা রেলবিটে রাস্তা অবরোধ করে দেয়।
এতে ক্যাম্পাস থেকে শহরগামী শিক্ষার্থীদের যানবাহনের অভাবে বিপাকে পড়ে।
বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকে তালা দেওয়ার চেষ্টা করে করলেও প্রক্টরিয়াল আশ্বাসে তা প্রত্যাহার করে নেয়। শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে ক্যাম্পাসে সিএনজি অটোরিক্সা বন্ধ করে পুনরায় তরী চালুর জোর দাবি জানায়।
বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল আশ্বাসে সিএনজি অটোরিক্সা চালকরা রেলবিট থেকে অবরোধ তুলে নেয়।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর হেলাল উদ্দীন চেীধুরী বলেন, ছাত্র ও সিএনজি মালিকদের সাথে কথা বলে বিষয়টি সমাধান হয়েছে। এছাড়াও রাত নয়টায় দু’পক্ষের সাথে বিষয়টি নিয়ে বৈঠক হবেও বলে জানান তিনি।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত