টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নিজেদের ফেভারিট ভাবছেন না মাশরাফি

চট্টগ্রাম, ২১ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) : এশিয়া কাপ ক্রিকেটের ১৩তম আসর শুরু হবে ২৪ ফেব্রুয়ারি। চার টেস্ট খেলুড়ে দেশের সঙ্গে ট্রফি জয়ের লড়াইয়ে শামিল হবে বাছাই পর্ব থেকে উঠে আসা একটি দল। পাকিস্তানের সাবেক দুই ক্রিকেটার ইনজামাম উল হক ও আকিব জাভেদ এখন রয়েছেন ঢাকায়। বাছাই পর্বে অংশগ্রহণ করা আফগানিস্তানের কোচ ইনজামাম। আর আকিব জাভেদ দায়িত্বে আছেণ আরব আমিরাতের।

পাকিস্তানের সাবেক দুই গ্রেট ক্রিকেটারের চোখে এশিয়া কাপে এবার ফেভারিট দল ভারত ও স্বাগতিক বাংলাদেশ। যদিও বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা এমনটা ভাবছেন না। নিজেদের ফেভারিট প্রমাণের জন্য খেলে না বাংলাদেশ। বরং নিজেদের সেরাট খেলা এবং জয়ের জন্যই খেলবে টাইগাররা। রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলনের আগে এসবই জানিয়েছেন মাশরাফি।

ইনজামাম ও আকিব জাভেদের ফেভারিট তত্ত্ব এবং নিজেদের প্রমাণের বিষয়ে মাশরাফি বলেন, “আমরা কখনোই কোন কিছু প্রমান করার জন্য ক্রিকেট খেলি না। আমরা বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করি; সম্ভাব্য যত কিছু আছে জেতার চেষ্টা করি। সম্ভাব্য যতটুকু ভালো করা যায়। সেটার দিকেই আমাদের চোখ থাকে। সেটাই উচিত আমি বিশ্বাস করি। এর ভেতর দিয়ে হয়তো খারাপ কিছু যায় অথবা যেতে পারে, সেগুলো ভুলে গিয়ে নতুন করে শুরু করা। এইসব বাদ দিলে আমার কাছে মনে হয়, আমাদের আত্মবিশ্বাস খুব ভালো আছে। আমরা যদি আমাদের সেরাটা খেলতে পারি ; আমাদের পরিকল্পনাগুলো আমরা যদি মাঠে বাস্তবায়ন করতে পারি। সেক্ষেত্রে আমি বিশ্বাস করি ভালো কিছু হবে।”

খুলনা ও চট্টগ্রামে দুই ধাপে এশিয়া কাপ, টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে টাইগাররা। সেই প্রস্তুতির রেশ ধরেই আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ দলে। এখন পরিকল্পনা গুলো মাঠে বাস্তবায়নই মূল লক্ষ্য মাশরাফিদের। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, “এই তিন দিনে নতুন কোন কিছুই পরিকল্পনা অবশ্যই নেই। এই কদিনে খেলোয়াড়রা নতুন কিছু করতে পারবে না। আমরা যা করার গত এক- দেড় মাসেই করে ফেলেছি। আমরা যা করেছি তার প্রতি আমাদের আস্থা ও বিশ্বাস আছে। আমরা সেগুলো মাঠে বাস্তবায়ন করতে পারলে আমার বিশ্বাস আমরা ভালো করবো।”

এশিয়া কাপেও স্পোর্টিং উইকেটই আশা করছেন নড়াইল এক্সপ্রেস। সেখানে বাংলাদেশের পেসাররা ভালো করবে বলেই বিশ্বাস মাশরাফির। ২০১৫ সালের মতোই বোলিংয়ে বাংলাদেশের মূল শক্তি হবেন পেসাররা। টাইগার অধিনায়ক জানালেন, “২০১৫ সালে আমাদের পেস আক্রমন ভালো গিয়েছে। আমার বিশ্বাস ব্যাটসম্যানরাও আগের বছর খারাপ করেনি। টি-২০ তে আমরা যে অবস্থানে দাড়িয়ে আছি, আমাদের র‌্যাঙ্কিং বলেন নির্দিষ্ট একটি জায়গাতে ফোকাস করে এগিয়ে যাওয়া খুব কঠিন আমার কাছে মনে হয়। আমার ব্যাটিং- বোলিং-ফিল্ডিং সব বিভাগেই আস্থা আছে দলের প্রতি। আমাদের আত্মবিশ্বাস যদি ঠিক মতো থাকে তাহলে আমরা ভালো খেলবো।”

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত