টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চবিতে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে ৩ মামলা

চট্টগ্রাম, ২০ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) : স্পেশাল পরীক্ষার দাবিতে কক্ষ ও ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে ছাত্রদের আবাসিক হলে ভাংচুরের ঘটনায় নয় দিন পর ১০ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ্য করে ও অজ্ঞাতনামা ৩০ জনকে আসামি করে পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. কামরুল হুদা বাদি হয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় এ তিনটি মামলা দায়ের করেন।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিদ্যা বিভাগে স্পেশাল পরীক্ষার দাবিতে বেশ কয়েকটি কক্ষ ভাংচুর করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় ফসিউল আলম সনেটকে প্রধান ও আরো ২৫ অজ্ঞাতনামাকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ মামলার দায়িত্ব দেওয়া হয় এসআই নুরুল আমিনকে।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সোহরোওয়ার্দী হল ভাংচুরের ঘটনায় ছয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তারা হলেন -আরাফাত হোসেন (হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের), বায়েজিদ সজল, ইমতিয়াজ উদ্দিন চৌধুরী, ইশতিয়াক আহমেদ তানভীর, আরাফাতুল ইসলাম ও মাহমুদুল ইসলাম। এ মামলার দায়িত্ব দেওয়া হয় এসআই কমলকে।

এ ছাড়াও শাহ আমানত হলে ভাংচুরের ঘটনায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে আরো বেশ কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে আরো একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইসমাইল হোসেন। তিনি  বলেন, গত ৪ ফেব্রুয়ারি পদার্থবিদ্যা বিভাগে কক্ষ ভাংচুর, ৮ ও ৯ ফেব্রুয়ারি ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় সোহরোওয়ার্দী ও শাহ আমানত হলে ভাংচুরের ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্যার। এতে দুই পক্ষের ১০ জনের নাম উল্লেখ ও আজ্ঞাতনামা ৩০ জনকে আসামি করা হয়।

মতামত