টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

লতিফকে নিয়ে মহিউদ্দীনের দেওয়া বক্ত্যব্যের প্রতিবাদ ৭ সাংসদের

albdচট্টগ্রাম, ১৭ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :   চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী সংসদ সদস্য এমএ লতিফকে হত্যার হুমকি ও প্ররোচনা দিয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন তা শিষ্টাচার বর্জিত ও আইন বিরোধী বলে এক বিবৃতিতে তার প্রতিবাদ জানিয়েছেন চট্টগ্রামের সাত সংসদ সদস্য।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) গণমাধ্যমে পাঠানো সাত সংসদ সদস্যের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানান তারা।

বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারী সাত সংসদ সদস্য হলেন, মাহফুজুর রহমান (চট্টগ্রাম-৩), দিদারুল আলম (চট্টগ্রাম-৪), এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী (চট্টগ্রাম-৬), ডা. মো. আফছারুল আলম (চট্টগ্রাম-১০), সামছুল হক চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১২), মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১৪) ও মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১৬)।

এ প্রতিবাদ লিপিতে বলা হয়, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রামের লালদিঘী মাঠে সংসদ সদস্য এমএ লতিফের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি বিকৃতির যে মিথ্যা অভিযোগ এন নাগরিক মঞ্চের উদ্যোগে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরী যে বক্তব্য দিয়েছেন তার প্রতিবাদ জানান তারা। ছবি বিকৃতির আত্মস্বীকৃত ডিজাইনারের বিরুদ্ধে অবস্থান না নিয়ে এমএ লতিফের মান ক্ষুন্ন তাকে সামাজিকভাবে হেয় করার উদ্দেশ্যেএ বক্তব্য কোনো ভাবেই দায়ীত্বশীর নেতার আচরণ হতে পারে না বলে জানানো হয়েছে।

এমএ লতিফের উদ্দেশ্যে ‘যদি কোনো দুর্ঘটনা ঘটে, যদি কোনো তরুণ যুবক ক্ষিপ্ত হয়ে আগাত করে, যদি এ আঘাতে তার মৃত্যু হয়, তাহরে তার নির্দেশদাতা হিসেবে অপরাধী হতে রাজি আছি। মামলায় আমাকে প্রথম আসামি করতে পারবেন। মহিউদ্দীন চৌধুরী কাঠগড়ায় যেতে রাজি আছি বলে বক্তব্য প্রদান করেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, একজন স্বাভাবিক সুস্থ মানুষ এ ধরনের দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য দিতে পারেন না। এমএ লতিফ দুবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য। তার বিরুদ্ধে কোনো বক্তব্য থাকলে তা দলীয় ফোরামে অভিযোগ উন্থাপন করতে পারেন। সরকার দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনার কাছে অভিযোগ না করে লালদিঘী মাঠে প্রতিবাদ সমাবেশ আয়োজন ও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এমন কুরুচি ও দৃষ্টতা পূর্ণ বক্তব্য প্রদান দলীয় শৃঙ্খলার পরিপন্থি শিষ্টাচার বর্হিভূত আচরণ ও পাগলের প্রলাপ। এহেন দলীয় ভাবমুর্তি ক্ষতিকারক কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার জন্য আমরা জোর দাবি জানান তারা।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত