টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের যাত্রা

চট্টগ্রাম, ১৬ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) : সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ দমনসহ বিশেষ ধরনের অপরাধ দমন ও মোকাবেলায় পুলিশের বিশেষায়িত সংস্থা ‘কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম’ ইউনিটের যাত্রা শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার সংস্থাটির প্রধান হিসেবে ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলামকে নিয়োগ দেওয়ার মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আলোচনায় থাকা এ ইউনিট চালু হলো। অন্যান্য কাজের পাশাপাশি পুলিশ বিশেষ ধরনের সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলা করে এলেও এখন থেকে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট এ ধরনের ঘটনা মোকাবেলা এবং এ-সংক্রান্ত মামলার তদন্ত করবে। এতে সুনির্দিষ্টভাবে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমন করা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।

বিশেষায়িত নতুন এ ইউনিটের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে মনিরুল ইসলাম বলেন, ঢাকা মহানগর পুলিশের অধীনে নতুন এ ইউনিট কাজ শুরু করেছে। আপাতত মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয় থেকেই কার্যক্রম চালানো হবে। তবে ঢাকায় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ-সংক্রান্ত ঘটনা মোকাবেলা ও দায়ের মামলা তদন্ত ছাড়াও নতুন সংস্থাটি সারাদেশে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিষয়গুলো নজরদারি করবে এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে সহায়তা দেবে।

মনিরুল ইসলাম বলেন, কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটে মোট সদস্য সংখ্যা ৬১১। তাদের মধ্যে একজন অতিরিক্ত ডিআইজি, চারজন পুলিশ সুপার, ১০ জন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, ২০ জন সহকারী পুলিশ সুপারসহ পরিদর্শক, উপপরিদর্শকসহ পুলিশ সদস্যরা থাকবেন। ইতিমধ্যে ডিবিতে কর্মরত ও পুলিশের অন্য ইউনিটে থাকা চৌকষ কর্মকর্তাদের এ ইউনিটে যোগদানের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

নতুন ইউনিটের কার্যক্রম সম্পর্কে এর প্রধান মনিরুল ইসলাম আরও বলেন, কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগ, সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগ, ক্রাইমসিন ম্যানেজমেন্ট বিভাগ ও ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম বিভাগ- এই চার ভাগে ভাগ হয়ে সদস্যরা কাজ করবেন। সন্ত্রাসবাদ, সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন, সন্ত্রাসবাদে সহায়ক অপরাধগুলো প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ করা এ ইউনিটের মূল উদ্দেশ্য।

ঢাকা মহানগর পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, জঙ্গিবাদ ও বিশেষ ধরনের সন্ত্রাস মোকাবেলায় পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে পুলিশের ‘কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম’ ইউনিট রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে দেশে এ সংস্থা গঠনের চেষ্টা চলে আসছিল। গত জানুয়ারিতে পুলিশ সপ্তাহের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশের বিশেষায়িত এ ইউনিট গঠনের প্রক্রিয়া শুরুর ঘোষণা দেন।

নতুন এ ইউনিট গঠনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পুলিশের দায়িত্বশীল অন্য এক কর্মকর্তা বলেন, আপাতত মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ে নির্মাণাধীন নতুন ভবনে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের অফিস হবে। তবে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এর সদর দপ্তর তৈরির জন্য ইতিমধ্যে দুই বিঘা জায়গা দেখা হয়েছে। এ ছাড়া নতুন এ ইউনিট স্বয়ংসম্পূর্ণ সংস্থায় পরিণত করতে ৯৮ কোটি টাকার একটি প্রকল্পও তৈরি করা হয়েছে। সেটি একনেকে পাস হলেই পুরোদমে কাজ শুরু হবে।

মতামত