টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

লতিফকে চট্টগ্রামে অবাঞ্ছিত ঘোষণা, ১৫ দিনের মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি

চট্টগ্রাম, ১৫ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) : বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃত করার অভিযোগে আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য আব্দুল লতিফকে চট্টগ্রামে অবাঞ্ছিত ঘোষণা, ১৫ দিনের মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি মহিউদ্দিন চৌধুরী।

সোমবার বিকেলে নগরীর লালদীঘি মাঠে এমএ লতিফকে আইনের আওতায় এনে বিচারের মুখোমুখি করার দাবিতে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আলটিমেটাম দেন তিনি। নাগরিক মঞ্চের ব্যানারে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

চট্টগ্রামে এম এ লতিফকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘জাতির জনকের ছবি বিকৃতির মাধ্যমে লতিফ যে মহা অন্যায় করেছে, সেকারণে চট্টগ্রামে বঙ্গবন্ধুর অনুসারীরা ক্ষোভে ফুঁসছেন। তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, সেটি আইনগতভাবে নিষ্পত্তি হবে। তবে জনগণের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ হিসেবে যদি সে (লতিফ) হামলার শিকার হয়। জনগণের হামলায় সে মারাও যেতে পারে। তাই যদি বাঁচতে চায় তাহলে সে যেন চট্টগ্রামের মাঠিতে পা না রাখে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এখানে এনএসআই, ডিজিএফআই, সাংবাদিক সকলেই আছেন। লতিফের ওপর যে কোনও সময় চট্টগ্রামে হামলা হতে পারে। ওই হামলায় সে মারাও যেতে পারে। এজন্য আমাকে যদি হুকুমের আসামি করা হয় এবং সেই আসামি হিসেবে কাটগড়ায়ও যেতে মহিউদ্দিন চৌধুরী রাজি অাছে। তবু এই কুলাঙ্গার লতিফকে চট্টগ্রামের মাটিতে নামতে দেয়া হবে না। চট্টগ্রামবাসীকে লতিফকে প্রতিহত করার আহ্বান জানাচ্ছি। তাকে এই লালদীঘির মাঠে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করলাম।’

মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আমি এই লালদীঘির মাঠে বিভিন্ন ইস্যুতে সামরিক বাহিনীসহ বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রাম করেছি। আজকে এসেছি, বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতিকারী পাকিস্তানি মনোভাবাপন্ন জামাতের চর লতিফের বিচারের দাবিতে। তার সংসদ সদস্য পদ বাতিলসহ গ্রেপ্তার করে তার বিচারের ব্যবস্থা করা না হলে আগামী ১৫ দিন পর এই লালদীঘির মাঠে অাবার দেখা হবে।’

লতিফের নামের আগে এমপি উচ্চারণ না করে কুলাঙ্গার উচ্চারণ করার কথা বলে নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি আরও বলেন, ‘এমএ লতিফ একজন কুলাঙ্গার। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে বিকৃত করার পর তাকে আর এমপি বলতে পারবো না। তার বিচার হতে হবে।’

লতিফকে লালদীঘি ময়দানে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে তিনি বলেন, ‘লালদীঘির মাটি পবিত্র। এ কুলাঙ্গারকে এই পবিত্র মাটিতে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত