টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

তুরস্কে জঙ্গিবিমান মোতায়েন করছে সৌদি আরব

worldচট্টগ্রাম, ১৪ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  তুরস্কের বিমান ঘাঁটিতে জঙ্গিবিমান মোতায়েন করছে সৌদি আরব। এরপর সৌদি আর তুরস্ক হয়তো সিরিয়ায় ‘ইসলামিক স্টেটের’ বিরুদ্ধে স্থল অভিযান শুরু করবে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শনিবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

আইএসের বিরুদ্ধে ‘কৌশল ঠিক হলে তুরস্ক ও সৌদি আরব স্থল অভিযান শুরু করতে পারে,’ মিউনিখে নিরাপত্তা সম্মেলনে বলছিলেন মেভলুত কাভুসোগ্লু।

তিনি বলেন, সৌদি আরব তুরস্কের ইনসিরলিক বিমান ঘাঁটিতে জঙ্গিবিমান পাঠাচ্ছে। সৌদি কর্মকর্তারা বিমান ঘাঁটিটি পরিদর্শন করেছেন।

তবে মেভলুত জানান, সৌদি আরব কতটি জঙ্গিবিমান পাঠাবে তা এখনো ঠিক হয়নি।

মিশরে ইসলামপন্থীদের ক্ষমতাচ্যুত করে সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখলকে কেন্দ্র মুসলিম বিশ্বের প্রভাবশালী দুটি দেশ সৌদি আরব ও তুরস্কের মধ্যে সম্পর্কের টানাপড়েন তৈরি হলেও সাম্প্রতিক সময়ে রিয়াদ ও আঙ্কারার মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বেড়েছে।

আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইনসিরলিক বিমান ঘাঁটি কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করছে। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স এই ঘাঁটি ব্যবহার করে সিরিয়ায় হামলা চালাচ্ছে।

মেভলুত বলেন, প্রয়োজন মনে করলে সৌদি আরব সেনাও পাঠাতে পারে। সিরিয়ায় সন্ত্রাসবাদ দমনে সৌদি আরব দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

সৌদি আরব ও তুরস্ক মনে করে সিরিয়ায় পাঁচ বছর ধরে চলা যুদ্ধের অবসানের জন্য স্বৈরশাসক বাশার আল-আসাদের পতন অপরিহার্য।

তবে ইরান ও রাশিয়া আসাদকে টিকিয়ে রাখতে মরিয়া।

তুরস্ক সীমান্ত দিয়ে সিরিয়ায় সৌদি সেনা ঢুকবে কিনা জানতে চাইলে মেভলুত বলেন, এ ধরনের কোনো পরিকল্পনা নেই। তবে প্রয়োজন মনে করলে স্থল অভিযানে সেনা পাঠাবে রিয়াদ।

এদিকে শুক্রবার ইস্তাম্বুলে তুরস্কের আরেক ঘনিষ্ঠ মিত্র কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানির সাথে কয়েক ঘণ্টা ব্যাপী বৈঠক করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

তবে বৈঠকের বিষয়বস্তু গোপন রাখা হয়েছে।

সূত্র: রয়টার্স

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত