টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফটিকছড়ির মাইজভান্ডার ওরসে দুই ছেলের সমর্থকদের সংঘর্ষ, ভাংচুর

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি থেকে

চট্টগ্রাম, ১০ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) ::  ফটিকছড়ির মাইজভান্ডারে বাবার ওরসে দুই ছেলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত আট ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

আজ বুধবার রাত আটটায় উপজেলার মাইজভান্ডার দরবার শরীফের মঈনীয়া মনজিল প্রাঙ্গনে এ ঘটনা ঘটে। এসময় মাজারের কাঁচের দরজা-জানালা ভাংচুর করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আজ মাইজভান্ডারী চেতনার অন্যতম প্রাণপুরুষ সৈয়দ মইনুদ্দীন আহমদ আল-মাইজভান্ডারীর ৭৯ তম খোশরোজ ওরস। এতে হাজার হাজার আশেক-ভক্ত অংশ নেন। আগে থেকে দুই ভাই আলাদা করে ওরস পালন করতেন। ওরস চলাকালে মইন্দ্দুীনের ছোট ছেলে সৈয়দ শহীদ উদ্দিন আহমদ সমর্থকদের নিয়ে বাবার মাজারে জেয়ারত করতে যান। সে সময় বড় ছেলে সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদের সমর্থকেরা তাঁকে বাধা দেন। এসময় পাল্টা আঘাত প্রদান করতে থাকে শহীদ উদ্দিনের ভক্তরা। মুহুর্তেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে।

শহীদ উদ্দিনের সমর্থক মুহাম্মদ এসকান্দর মিয়া বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে আগে থেকেই সাইফুদ্দীন আহমদের সমর্থকেরা এ হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছেন। এই না হলে মুহুর্তেই এত লোক জড়ো হয়ে মারামারি করার কথা নয়।’

সাইফুদ্দীন আহমদের সমর্থক মুহাম্মদ আবুল কাশেম বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ ওরসে বিশৃংখলা সৃষ্টি করতে শহীদ উদ্দিনের সমর্থকেরা এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। আমরা বিষয়টি থানা প্রশাসনকে অবহিত করেছি।’

এদিকে, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, ফটিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নজরুল ইসলাম ও ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজ উদ্দিন।

ওসি বলেন, ‘বাবার ওরস পালন করতে গিয়ে দুই ভাইয়ের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত আট ব্যক্তি আহত হয়েছেন। তাদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

জানতে চাইলে সৈয়দ শহীদ উদ্দিন আহমদ বলেন, ‘ইচ্ছাকৃতভাবে আমার সমর্থকদের উপর হামলা চালিয়েছে। আমি এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবী করছি।’

এ বিষয়ে সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি মুঠোফোন ধরেন নি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ওরশে উভয়পক্ষের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। উভয় পক্ষ আলাদাভাবে ওরশ মঞ্চ তৈরী করেন। প্রশাসন উভয় পক্ষকে কঠোর হুশিয়ারী দিয়ে রাত ১২ টার মধ্যে ওরশ শেষ করার নির্দেশনা দিয়েছেন।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত