টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ভূমিকম্প প্রকৌশলে বাংলাদেশে প্রথম ডিগ্রি প্রদান চুয়েটের

picচট্টগ্রাম, ০৩ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :: চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট) থেকেই অর্জিত হলো বাংলাদেশের ইতিহাসে যে কোন স্তরের শিক্ষাকার্যক্রমে ভূমিকম্প প্রকৌশলবিদ্যায় প্রথম ডিগ্রী।

চুয়েটের ইনস্টিটিউট অব আর্থকোয়াক ইঞ্জিনিয়ারিং রির্সাচ ( আইইইআর) Postgraduate Diploma in Earthquake Engineering -এর প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী জনাব রাজেন দে গতকাল এই ডিগ্রি অর্জন করেন।

উক্ত ইনিষ্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রহমান ভুঁইয়ার তত্ত্বাবধানে ‘‘Effect of infill walls on seismic responses of Reinforced Concrete buildings’’ শীর্ষক গবেষণা প্রকল্পের বিষয়বস্তু ছিল ‘‘বাংলাদেশে বীম কলাম কংক্রিটের ফ্রেম বিল্ডিং এর মধ্যে ইটের তৈরী Partition Wall ব্যবহারের কারনে ভূমিকম্পের সময় বীম কলাম কংক্রিটের ফ্রেমের উপর Partition Wall এর আচরণ কেমন হবে তা নির্ণয় করা’’।

গতকাল (০২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১২টার দিকে সময় ইনিষ্টিটিউটের কনফারেন্স কক্ষে জনাব রাজেন দে তাঁর গবেষণা প্রকল্পের বিষয়বস্তু- Examination Board এর সামনে উপস্থাপন করেন। Examination Board -এ উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ভূমিকম্প বিশেষজ্ঞ, চুয়েটের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম, আইইইআর-এর পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রহমান ভুঁইয়া। এ সময় মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম এই গবেষণা প্রকল্পের কাজের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানান। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন সহকারী অধ্যাপক (গবেষণা) জনাব রামকৃষ্ণ মজুমদার, প্রভাষক (গবেষণা) জনাব শেফায়েত বিন আলী ও জনাব মোহাম্মদ রায়হান মুখলিস।

উল্লেখ্য, ভৌগলিক অবস্থানগত কারণে বাংলাদেশ ভূমিকম্প দুর্যোগপ্রবণ অঞ্চলে অবস্থিত। এদেশের ভূমিকম্প ঝুকি হ্রাস এবং ভূমিকম্প প্রকৌশলবিদ্যায় উচ্চতর গবেষণার লক্ষ্যে ১৯৯৯ সালে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিথযশা ভূমিকম্প বিশেষজ্ঞ, চুয়েটের বর্তমান মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম-এর নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠিত হয় ভূমিকম্প প্রকৌশল গবেষণা কেন্দ্র (Earthquake Engineering Research Center)পরবর্তীতে ২০১২ সালে আধুনিক গবেষণার পাশাপাশি ভুমিকম্প প্রকৌশল বিদ্যায় উচ্চতর শিক্ষাব্যবস্থা প্রণয়নের লক্ষ্যে ঊঊজঈ রূপান্তরিত হয় ভূমিকম্প প্রকৌশল গবেষণা ইনিষ্টিটিউট (Institute of Earthquake Engineering Research) হিসাবে। এরই ধারাবাহিকতায় এই ইনিষ্টিটিউটের অধীনে ২০১৪-১৫ ইং শিক্ষাবর্ষে বাংলাদেশে প্রথমবারের মত ভূমিকম্প প্রকৌশল বিষয়ের উপরে ¯œাতকোত্তর পর্যায়ে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করে। বর্তমানে দেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে অত্র প্রতিষ্ঠানে ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষ থেকে Postgraduate Diploma in Earthquake Engineering, M.Sc/M.Engg. in Earthquake Engineering Programme চালু রয়েছে ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত