টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফটিকছড়িতে অপহরণকারীদের ভুল টার্গেটের শিকার প্রবাস !

নিখোঁজ হওয়া বরের সন্ধান মিললো কক্সবাজারে

মীর মাহফুজ আনাম
ফটিকছড়ি প্রতিনিধি 

fatickchari(nikooj)চট্টগ্রাম, ০২ ফেব্রুয়ারি (সিটিজি টাইমস) ::  ফটিকছড়িতে বিয়ের পরে ফুলশয্যার দিন বাজারে গিয়ে নিখোঁজ হওয়া বরের সন্ধান মিলেছে। নিখোঁজ হওয়ার আট দিন পর তাকে অপহরণকারীরা কক্সবাজারের বানৈয়ার চরা এলাকায় নির্জন বিলের মাঝে চোখ বাঁধা অবস্থায় ছেড়ে দেয় বলে নিখোঁজ হওয়া প্রবাস মঙ্গলবার(আজ) সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন। এর পর তিনি কক্সবাজার লালদিঘী এলাকায় এসে জনি বনিক নামক তার এক খালাতো ভাইয়ের কাছে ফোন করে নিজের অবস্থানের কথা জানান। পরে তাকে বিকাশ করে টাকা পাঠালে মঙ্গলবার বিকেলে প্রবাস চট্টগ্রাম শহরে আসেন। সেখান থেকে তার বড় ভাই তাকে নিয়ে রাতে ফটিকছড়ির ভূজপুর থানায় নিয়ে আসেন। অপহরণকারীদের ভুল টার্গেটের শিকার হয়ে তিনি বন্দি ছিলেন বলে জানিয়েছেন।

নিখোঁজ হওয়ার ঘটনার বিবরণে প্রবাস বলেন, ‘সেদিন আমি নাজিরহাট ঝংকার মোড় থেকে বিবিরহাটের উদ্দেশ্যে যাওয়ার জন্য একটি সিএনজি গাড়িতে উঠি। আমি ছিলাম গাড়ির পেছনে বসা। আমার পাশে অচেনা দুই ব্যক্তি বসা ছিল। চালকও অচেনা। মহুর্তেই আমি অজ্ঞান হয়ে পড়ি। বেশ কানিকটা পর আমার জ্ঞান ফিরে এলে তখন আমার দু‘চোখ বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং আমাকে অপর একটি বড় গাড়িতে করে অনেক দূর নিয়ে গিয়ে একটি কক্ষে বেঁধে রাখে। আমার কাছ থেকে সবকিছু ছিনিয়ে নেয় তারা। আমি অনেক কান্নাকাটি করেছি । তারা আমাকে কিছুই জিজ্ঞাস করেনি। তবে, আমাকে তারা কোন প্রকার প্রহার করেনি। আমাকে আলুর বর্তা, শাক দিয়ে ভাত দিতো। মাঝে মাধ্যে খুব ভয় হতো আমাকে পাচার কারীরা নিয়ে এসেছে কিনা ? কাল একজন এসে বলল ‘তাকে কেন নিয়ে এসেছ ? আমি যাকে নিয়ে আসতে বলেছি সেতো এ ব্যক্তি না। তাকে ছেড়ে দাও। এর পর তারা আমাকে একটি নোহা গাড়ি দিয়ে একটি নির্জন বিলের মধ্যে ছেড়ে দেয়। এরপর আমি অনেক্ষণ হেঁটে মূল সড়কে আসি। মুক্ত হয়ে মনে হচ্ছে দ্বিতীয় জীবন পেয়েছি। সৃষ্টিকর্তার কৃপায় আমি নিরাপদে আমার পরিবারের কাছে ফিরে এসেছি তাতেই খুশি।

উলে­খ্য, ফটিকছড়ি উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভাধীন পূর্ব সুয়াবিল ভাঙ্গাদিঘীর পাড় এলাকার বাবুল ধরের ছেলে প্রবাস ধর (৩০) গত ২৫ (সোমবার) জানুয়ারী নাজিরহাট বাজারে কেনাকাট করতে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন। সেদিন ছিল তার ফুলশয্যার দিন। ফুলশয্যার দিনে বর নিখোঁজ হওয়ার ঘটনাটি এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়।

মতামত