টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

পৃথিবী একদিন শেখ হাসিনার উন্নয়নের উদাহারণ দিবে

Dr.-Hasan-Mahmud-Pic-01চট্টগ্রাম, ২৬ জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, সাবেক মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন অদম্য গতিতে এগিয়ে চলেছে। শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বের কারনে বাংলাদেশের অর্থনীতির ঘুর্নায়মান চাকা এখন ধাবমান চাকায় পরিণত হয়েছে। এক সময়ে খাদ্য ঘাটতির বাংলাদেশ এবং খাদ্য উৎপাদসে স্বয়ংসম্পূর্ণতার পাশাপাশি খাদ্য রফতানিকারক দেশে পরিণত হয়েছে। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আধুনিয়ক সমৃদ্ধ মালয়েশিয়ার জনক হিসেবে বিশ্ব এখন মহাথির মোহাম্মদের উদাহারণ দিয়ে থাকে। মহাথির মোহাম্মদ মালয়েশিয়ায় ২২ বছর ধরে প্রেসিডেন্ট ছিলেন। শেখ হাসিনা গত ৭ বছর ক্ষমতায় থেকে বাংলাদেশের যে উন্নয়ন করেছেন, বাংলাদেশের অর্থনীতিকে যেভাবে এগিয়ে নিয়ে গেছেন তা ইতিমধ্যে সমগ্র বিশ্বকে হতবাক করে দিয়েছে। শেখ হাসিনাকে যদি বার বার নির্বাচিত করা হয় তাহলে সারাবিশ্ব একদিন সমৃদ্ধ উন্নত বাংলাদেশ গঠন এবং উন্নয়নের জন্য শেখ হাসিনার উদাহারণ দিবে। ড. হাছান মাহমুদ মঙ্গলবার দুপুরে চট্টগ্রামের একটি কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এসব কথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের দিনবদল এখন বাস্তবতা। ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন বাস্তবতা। স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশে যখন জনসংখ্যা ছিলো মাত্র সাড়ে ৭ কোটি তখন এদেশে খাদ্য উৎপাদন ছিলো মাত্র ১ কোটি ৮০ লাখ মেট্রিটন। বর্তমানে বাংলাদেশে খাদ্য উৎপাদন ৪ কোটি মেট্রিকটন। এক সময়ের খাদ্য ঘাটতির বাংলাদেশ এখন খাদ্য রপ্তানিকারক। এই উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের কৃষক এবং কৃষির উন্নয়নের জন্য। বাংলাদেশে এখন সারের জন্য কৃষকদের প্রাণ দিতে হয় না। সার এখন কৃষকের পিছে ছুটে বেড়ায়। দেশের এখন সারের দাম কম, কৃষি উপকরণের দাম কম। শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বের কারনেই কৃষির এই অভুতপূর্ব উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের অর্থনীতি যে অদম্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে তা বিশ্বব্যাংকের অর্থনীতিবিদও স্বীকার করেছেন। কিন্তু বাংলাদেশের এই এগিয়ে যাওয়া শুধুমাত্র খালেদা জিয়ার চোখে পড়ে না। ড. হাছান মাহমুদ বলেন, শেখ হাসিনা যে প্রতিশ্রæতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন বাংলাদেশের অভুতপূর্ব অগ্রযাত্রার সাথে সাথে সব প্রতিশ্রæতি পূরণ করছেন শেখ হাসিনা। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করার প্রতিশ্রæতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন শেখ হাসিনা। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করে সেই প্রতিশ্রæতি পূরণ করেছেন। এদেশে একদিন খালেদা জিয়াসহ সকল অগ্নিসন্ত্রাসীদেরও বিচার হবে।

চট্টগ্রাম উত্তরজেলা কৃষকলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে এই সম্মেলন উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সভাপতি মোতাহের হোসেন মোল্লা। সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক রাষ্ট্রদূত নুরুল আলম চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের প্রশাসক এবং উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ ছালাম, উত্তর জেলা আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক ইউনুছ গণি চৌধূরী, কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শামসুল হক রেজা, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি আকবর আলী চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক সমীর চন্দ্র চন্দ, সাবেক চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল করিম, উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি, কেন্দ্রীয় সদস্য শফিকুল ইসলাম, উত্তর জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক ফসিউদৌলা চৌধুরী, উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি বখতেয়ার সাঈদ ইরান, সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়ব। এ ছাড়া সম্মেলনে চট্টগ্রাম উত্তর জেলার বিভিন্ন উপজেলার কৃষকলীগের প্রতিনিধিগণ বক্তব্য রাখেন। উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গুনিয়া পৌর মেয়র শাহজাহান শিকদার, রাউজান পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিত প্রমুখ।

সম্মেলনে কৃষকলীগ ছাড়াও আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, মহিলালীগ এবং আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অংগসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মতামত