টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

পুলিশে ৫০ হাজার পদ সৃষ্টির সিদ্ধান্ত

চট্টগ্রাম, ২৬  জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) : সরকার বাংলাদেশ পুলিশে ৫০ হাজার নতুন পদ সৃষ্টির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার সকালে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে পুলিশ সপ্তাহ-২০১৬ এর অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ পুলিশের সংখ্যা বৃদ্ধি করে দেড় লাখ করা হয়েছে। উপ-পরিদর্শক (এসআই) পদকে দ্বিতীয় শ্রেণি এবং ইন্সপেক্টরকে প্রথম শ্রেণির গ্রেডে উন্নীত করা হয়েছে। পুলিশের লোকবল আরো বৃদ্ধি করা হবে, যাতে পুলিশ বাহিনী যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে পারে। ইতোমধ্যে পুলিশে ৫০ হাজার নতুন পদ সৃষ্টির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়া চাহিদামত যানবাহন ও সরঞ্জাম সরবরাহ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, পুলিশের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য আলাদা ইন্ডাস্ট্রি পুলিশ, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই), স্পেশাল সিকিউরিটি অ্যান্ড প্রোটেকশন ব্যাটালিয়ন (এসপিবিএন), নৌ-পুলিশ গঠন করা হয়েছে। জনগণ ইতোমধ্যে এগুলোর সেবা ভোগ করছে।

বিএনপি-জামায়াতের জ্বালাও-পোড়াও, উপজেলা নির্বাচন, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ও মানবতাবিরোধীদের বিচারের সময় পুলিশ প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখেছে। তাদের সাহসিকতার জন্য দেশে সন্ত্রাসবাদ-জঙ্গিবাদ মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারেনি বলে তাদের ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

পুলিশ বাহিনীকে উদ্দেশ্য করে শেখ হাসিনা বলেন, “পুলিশকে অসহায় মানুষের পাশে বন্ধুর মতো দাঁড়াতে হবে। যাতে মানুষ পুলিশের উপর ভরসা পায়।”

পুলিশ সপ্তাহ অনুষ্ঠানে ১৬ মিনিটের ভাষণে পুলিশের নানা অবদানকে সাধুবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এর আগে মঙ্গলবার সকাল ১০টায় উপস্থিত হয়ে রাজধানীর রাজারবাগে পুলিশের বিভিন্ন বাহিনীর প্যারেড প্রদক্ষিণ ও সালাম গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় প্যারেডে অংশ নেয় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি), আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন), ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ, এসপিবিএন, র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব), স্পেশাল ব্রাঞ্চ পুলিশ (এসবি), ট্র্যাফিক পুলিশ কন্টিনজেন্ট ও জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কন্টিনজেন্ট।

২০১৫ সালের বীরত্বপূর্ণ ও কৃতিত্বপূর্ণ কাজের জন্য ১০২ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম), বিপিএম-মরণোত্তর, রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম), পিপিএম-সেবা প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে এ সময় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক, অতিরিক্ত আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদসহ বিভিন্ন বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

One comment

  1. পুলিশে ৫০ হাজার পদ সৃষ্টির সিদ্ধান্ত সংবাদটি পড়ে ভালো লাগলো । আশা করি এতে দেশের অনেক বেকারত্ত কমে যাবে । সরকারকে এ জন্য অনেক ধন্যবাদ ।

মতামত