টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাইয়ে গৃহহীন ১৬টি পরিবার পেলো আধাপাঁকা সরকারী ঘর

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই প্রতিনিধি 

Mirsarai-ctg-house-photoচট্টগ্রাম, ১৫ জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  মিরসরাইয়ে সরকারি প্রদত্ত আধা পাকা ঘর পেয়েছে ১৬টি গৃহহীন পরিবার। এদের অধিকাংশ পরিবার নি¤œ আয়ের বলে জানান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নের ১৬টি গৃহহীন পরিবারকে দুই কক্ষ বিশিষ্ট আধা পাকা ঘর, একটি টিউবয়েল ও একটি টয়লেট দেওয়া হয়। প্রতিটি ঘরের জন্য বরাদ্দ ছিল ২ লাখ ২১ হাজার ৬শত ৯৪ টাকা।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস সূত্রে জানা যায়, করেরহাট ইউনিয়নের অলিনগর গ্রামের গোলালের রহমানের পুত্র মীর হোসেন, হিঙ্গুলী ইউনিয়নের পূর্ব হিঙ্গুলী গ্রামের আবু তাহেরের স্ত্রী ছালেহ বেগম, জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের পরাগলপুর গ্রামের রফিক উদ্দিনের পুত্র সমির উদ্দিন, ধুম ইউনিয়নের শান্তিরহাটের সবুজ মিয়ার স্ত্রী নাজমা আক্তার, ওসমানপুর ইউনিয়নের মনসুর আহম্মদের পুত্র জয়নাল আবেদীন, ইছাখালী ইউনিয়নের মাদবারহাট গ্রামের ফকির আহম্মদের পুত্র একরামুল হক, কাটাছরা ইউনিয়নের বাড়িয়াখালী গ্রামের তাজুল ইসলামের পুত্র নুরুল আবছার, দূর্গাপুর ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের হরকুমারের স্ত্রী তিলকা দাশ, মিরসরাই সদর ইউনিয়নের জাফরাবাদ গ্রামের নগেন্দ্র কুমার দাশের পুত্র কৃঞ্চধন দাশ, মিঠানালা ইউনিয়নের সফিউল আলমেন স্ত্রী রওশান আক্তার, মঘাদিয়া ইউনিয়নের শেখের তালু গ্রামের আবুল খায়েরের স্ত্রী ছেমনা আফরোজ, খৈয়াছরা ইউনিয়নের পূর্ব খৈয়াছরা গ্রামের সৈয়দ আহম্মদের পুত্র হেঞ্জু মিয়া, মায়ানী ইউনিয়নের পশ্চিম মায়ানী গ্রামের শেখ ফরিদের স্ত্রী নেছরা খাতুন, হাইদকান্দি ইউনিয়নের বালিয়াদি গ্রামের ইউসুফের স্ত্রী হাজেরা খাতুন, ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের মধ্যম ওয়াহেদপুর গ্রামের আব্দুল হালিমের স্ত্রী হালিমা খাতুন, সাহেরখালী ইউনিয়নের পশ্চিম সাহেরখালী গ্রামের অলি আহম্মদের পুত্র ছলিমুল্লার পরিবার ঘরগুলো পান।

ঘর পাওয়া হিঙ্গুলী ইউনিয়নের আবু তাহেরের স্ত্রী ছালেহ বেগম জানান, তার জায়গা থাকলেও ঘর করার সাধ্য ছিল না। তাই সরকার ঘর দেয়া তিনি খুব আনন্দিত। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও হাইদকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী জানান, খুব সষ্ঠুভাবে যাচাই বাছাইয়ের পর ১৬টি ইউনিয়নের গৃহহীন পরিবারকে ঘর দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ যাদের জায়গা আছে কিন্তু ঘর নেই তারাই ঘর পেয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো.সাইফুল্লাহ মজুদদার জানান, ইতিমধ্যে ১৬টি পরিবারের কাছে ঘরগুলো হস্তান্তর করা হয়েছে। প্রতি ঘর দুই কক্ষ বিশিষ্ট। এছাড়া ঘরের সাথে একটি টিউবয়েল ও একটি স্বাস্থ্য সম্মত টয়লেট দেওয়া হয়েছে। এটি প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায়।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত