টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রাউজানে গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু ঘটনায় স্বামী- ননদ রিমান্ডে

এস.এম. ইউসুফ উদ্দিন
রাউজান প্রতিনিধি 

Raozan-murder-pic-3চট্টগ্রাম, ১৪ জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  চট্টগ্রামের রাউজানের নোয়াপাড়া কচুখাইন গ্রামে উর্মী আকতার (২৬) নামের এক সরকারী কর্মচারীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় স্বামী ইকবালের ২দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। মামলার অন্য আসামী ইকবালের খালাতবোন নুর বানুর এক দিনের রিমান্ড দেওয়া হয়। বৃহষ্পতিবার ৫দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে আদালত এ আবেদন মঞ্জুর করে স্বামীর ২ দিন আর ননদের ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়। এছাড়াও একই মামলার আসামী উর্মীর শাশুড়ী লায়লা বেগমের রিমান্ড আবেদন আদালত নাকচ করে তাকে জেল হাজতে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন বলে জানাগেছে। এ প্রসঙ্গে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা রাউজান থানার ওসি আলমগীর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

গত শনিবার রহস্যজন এ ঘটনা ঘটে উপজেলার নোয়াপাড়া ইউনিয়নের পূর্ব কচুখাইন গ্রামের কাদের সওদাগরের নতুন বাড়ীতে। একই রাতে রাউজান থানায় নিহতের পিতা এনামুল হক মুন্সি বাদী হয়ে স্বামীসহ ৫/৭ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়। উর্মীর পরিবারের অভিযোগ এ হত্যাকাণ্ডে স্বামী ইকবাল ও অন্যান্যরা জড়িত। তাদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি চেয়েছেন তারা।

অপরদিকে উর্মীর স্বামী ইকবালের আত্মীয় স্বজনের দাবী ঘটনার সময় উর্মীর ভাসুরেরা কেউ বাসায় ছিল না। ইকবাল বাসায় ছিল। পরিবারের পুর্বের শত্র“তাবসত ইকবাল উর্মীর ভাসুরদের এ ঘটনায় জড়িয়ে উর্মীর পরিবারকে ভূল তথ্য দিয়ে নিজে বাঁচতে চেয়ে মামলার আসামী করা হয়েছে। নিহত উর্মীর বোন নাজমা আকতার বলেন, এ ঘটনার পর থেকে আমরা তার স্বামী ইকবালকে নানা ধরনের পরীক্ষা করি। কিন্তু তার কথা বার্তায় আমরা নিশ্চিত হয়েছি সে এ ঘটনার পিছনে মুল হোতা। স্ত্রীর নিহতের ঘটনায় তার মাঝে কোন আপসোস দেখা যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ইকবালের সাথে তার ভাইদের মধ্যে সম্পত্তির ভাগাভাগি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল কয়েক বছর থেকে। এই বিরোধে জের ধরে স্থানীয় ভাবে বেশ কয়েক বার সালিশ নালিশ হয়েছে।

এদিকে দাম্পত্য জীবনে ইকবাল ও তার স্ত্রী উর্মীর সাথে তেমন সখ্যতা ছিল না শাশুরীসহ ভাসুর পরিবারের সাথে। পারিবারিক এই অশান্তির মাঝে ইকবালও বিভিন্ন সময স্ত্রীর উশৃংখল জীবন যাপন দেখে মারধর করতো বলে জানাগেছে। সর্বশেষ গত শ্বাশুর বাড়ীর রান্নাঘরের ফ্যানের সাথে শনিবার উর্মীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে রাউজান থানা পুলিশ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত