টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

১২৩ ভাগ বেতন বাড়ানোর পরও কেন মনোঃপুত হলো না: প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ০৯ জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  সরকার ঘোষিত জাতীয় পে-স্কেল নিয়ে কোনও কোনও মহলের আন্দোলনের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদর ১২৩ ভাগ বেতন বাড়ানো হয়েছে। এত কিছু দেওয়ার পরও কেন কারও কারও মনোঃপুত হলো না সেটি বোধগম্য নয়। তবে যে যেখানে চাকরি করেন, সবাইকে তার শৃঙ্খলা মেনে চলতে হবে।

শনিবার গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

রাজধানীতে মেট্রোরেল নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষকদের আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যখনই কোনও উন্নয়ন প্রকল্প নেওয়া হয়, তখনই কোনও কোনও মহল এতে বাধাগ্রস্ত করতে উঠেপড়ে লাগে। এভাবে বাধাগ্রস্ত করা হলে উন্নয়নই বন্ধ হয়ে যাবে। উন্নয়ন প্রকল্পে যারা অর্থ দিচ্ছেন, তারাও অর্থ ফেরৎ নেবেন। তাই দয়া করে কেউ উন্নয়নকাজে কোনও বাধা দেবেন না। কার কী অসুবিধা সেটি আমরা জানি, দেখবো।

৫ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাম্প্রতিক বক্তব্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, বিএনপি নেত্রী ওই নির্বাচনের ভোটারদের ‘কুকুর’ বলে চরম ঔদ্ধত্য দেখিয়েছেন। পাকিস্তান ও রাজাকার-আলবদরদের হয়ে এভাবে মানুষকে ‘কুকুর’ বলা এবং নির্বাচন বানচালের আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যার জন্য তাকে জাতির কাছে জবাবদিহি করতে হবে। দেশের মানুষ এটি সহ্য করবে না। মানুষ পুড়িয়ে হত্যার জন্যও তার বিচার হওয়া উচিত।

৫ জানুয়ারির দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিনে বিএনপির জনসভায় খালেদা জিয়ার বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘পত্রিকায় দেখলাম বিএনপি নেত্রী বলেছেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রগুলোতে কেবল পুলিশ আর কুকুর ছিল। এখন সেখানে ভোটিং অফিসার ছিল, সাংবাদিক ছিল, ভোটার ছিল। ৪৩ ভাগ মানুষ ভোট দিলেন। সবাইকে তিনি কুকুর হিসেবে দেখলেন! অবশ্য যখন মানুষের জলাতঙ্ক হয় তখন সবাইকে কুকুর দেখে। তাই তার দৃষ্টিতে সব কুকুর হয়ে গেল।’

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘কতবড় অডাসিটি, কত বগ হীনমন্যতা। মানুষ ও ভোটারদের তিনি কুকুর হিসেবে দেখলেন। এতবড় নোংরা কথা জঘন্য কথা গালি তার মুখেই সাজে।’ এ ধরনের কথা বলা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, ‘যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে, ভোটারদের কুকুর বলে, তার জবাব জাতির কাছে একদিন দিতে হবে। তিনি যেন তওবা করেন, মানুষের কাছে ক্ষমা চান। মানুষকে কেন কুকুর বললেন?’

মতামত