টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

অবৈধ দখলমুক্ত করে সৌন্দর্য বর্ধন: চসিকের ক্র্যাস প্রোগ্রাম চলবে ৩ মাস

cচট্টগ্রাম, ০৪  জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  চট্টগ্রাম নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডেকে অবৈধ দখলমুক্ত করে সৌন্দর্য বর্ধনে ৩ মাস ব্যাপী ক্র্যাস প্রোগ্রাম পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক)।

সোমবার দুপুরে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের সভাপতিত্বে কে বি আবদুচ ছাত্তার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ৬ষ্ঠ সাধারণ সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

চসিকের এ সভায় নগরীর খাল, নালা, রাস্তা, ফুটপাত, সিটি কর্পোরেশনের সম্পত্তি, সরকারী জায়গা দখল মুক্ত করা, অবৈধ বিলবোর্ড, ব্যানার, পোষ্টার, তোরন, ফেষ্টুন, প্লেকার্ড সহ যাবতীয় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানের মাধ্যমে নগরীর সৌন্দর্য বর্ধনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

সভায় নগরীর ৪১ টি ওয়ার্ডে জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও র‌্যাব-৭ এর সহযোগীতায় ভ্রাম্যমান আদালত ৩ মাস ব্যাপী ক্র্যাস প্রোগ্রাম পরিচালনা করে নগরীকে গ্রিণ ও ক্লীন সিটিতে পরিণত করা হবে বলে জাননো হয়।

চট্টগ্রাম নগরীকে যানজট মুক্ত করার লক্ষে পুলিশ প্রশাসনের সাথে সমন্বয় বৈঠকের মাধ্যমে যত্রতত্র পার্কিং, রাস্তা দখল করে পার্কিং, যত্রতত্র হাট-বাজার বসা বন্ধ করা হবে এবং অবৈধ গাড়ী চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ট্রাফিক পুলিশকে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহন করার জন্য বলা হবে বলে জানানো হয়।

সভায় সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, কসমোপলিটন সিটি চট্টগ্রামকে বিশ্ববাসীর নিকট একটি মডেল নগরী হিসেবে তুলে ধরতে সিডিএ প্রনীত ঝুঁকিপূর্ণ ভবন এর তালিকা পরীক্ষা নিরীক্ষা পূর্বক কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ, সবগুলো সড়ক মেরামত ও সংস্কার করা, অব্যবহৃত ও বেদখল জায়গা সমূহ উদ্ধার করে সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করা, খাল খনন এবং অবৈধ দখল চিহ্নিত করার জন্য ডিজিটাল সার্ভে পরিচালনা করা হচ্ছে।

এ ছাড়া নগরীর মূল সড়কের উভয় পার্শ্বে ভবন এবং দেয়াল সমূহের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য এক রং করার বিষয়ে ভবন মালিকদের সহযোগিতা কামনা করেন মেয়র।

সভায় প্যানেল মেয়র, সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও সচিব সহ বিভাগীয় ও শাখা প্রধানগণ এবং অফিসিয়্যাল কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

মতামত