টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আলীকদমে পৃথক তিন খুনের ঘটনায় ২ মামলা

এস.এম ইসমাইল হাসান
বান্দরবান প্রতিনিধি 

Alikadam-Mardar-news-pc-(1)চট্টগ্রাম, ০৪  জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  বান্দরবানের আলীকদমে তিন খুনের ঘটনায় পৃথক দুইটি মামলায় আটককৃত সন্দেহবাজন আসামী লারমন ত্রিপুরাকে জোড়া খুনের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আটক দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ। বান্দরবান জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও আলীকদম থানার উপ-পরিদর্শক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন এই রিমান্ড প্রার্থনা করেন। আদালত আগামী ৭জানুয়ারী রিমান্ড শুনানীর দিন ধার্য করেছেন। একইভাবে বোরহান উদ্দিন নামক অপর এক ব্যক্তিকে খুদের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আটক দেখিয়ে দেয়াম্বু ত্রিপুরাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭দিনের রিমান্ড প্রার্থনা করা হবে বলে জানান, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও আলীকদম থানার উপ-পরিদর্শক আল-মুরাদ।

আদালত সূত্রে জানাগেছে, আলীকদম উপজেলায় দুইদিনের ব্যবধানে তিন খুনের ঘটনায় নিহতের স্বজন ও পুলিশের পক্ষ থেকে থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে গত ২জানুয়ারী প্রথম মামলাটি দায়ের করেন অপহরণের পর খুন হওয়া বোরহান উদ্দিনের স্ত্রী জোহুরা বেগম। এই মামলায় তিনি ৬জনকে এজহার নামীয় ও ৭-৮জনকে অজ্ঞাত আসামী হিসেবে উল্লেখ করেন। এদিকে আলীকদম থানার উপ-পরিদর্শক ভুলু মিয়া নিজে বাদী হয়ে জোড়া খুনের ঘটনায় অপর মামলাটি দায়ের করেন। তিনিও ১০-১৫জন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামী হিসেবে উল্লেখ করেন। এ দুই মামলায় আলীকদম থানা পুলিশ সন্দেহবাজন হিসেবে দেয়াম্বু ত্রিপুরা (৩০) ও লারমান ত্রিপুরা (৩৩) নামক দুইজনকে আটক করে। তাদের মধ্যে দেয়াম্বু ত্রিপুরা উপজেলার লাংড়ী ত্রিপুরা পাড়ার হাঙগাছা ত্রিপুরার ছেলে এবং লারমান ত্রিপুরা উপজেলার কলার ঝিরি চন্দ্রমোহন কারবারী পাড়ার এলাকার নিলা চন্দ্র ত্রিপুরার ছেলে।

তথ্যানুসন্ধানে জানাগেছে, গত বুধবার রাতে ১৩ কিলো এলাকার বোরহান উদ্দিনের খামার বাড়ি থেকে তাকে অপহরণ করে। অপহরণকারীদের কাছ থেকে অপহৃত বোরহান উদ্দিকে ছাড়িয়ে নিতে যায় ত্রিপুরা অপর এক সন্ত্রাসী পার্টি “শর্মা গ্রুপ”। এসম দু’পক্ষের মধ্যে চরম গোলাগুলির এঘটনা ঘটে। এতে এমএনডিপি’র এক সদস্য ও শর্মা গ্রæপের এক সদস্য নিহত হয়। পরবর্তীতে আলীকদম-থানচি সড়কের পার্শ্ববর্তী প্রায় ১০০০ ফুট গভিরে কামরাঙ্গা ঝিরি নাম একটি ছড়া থেকে বোরহান উদ্দিনের মৃত দেহ উদ্ধার করে আলীকদম সেনা জোন ও পুলিশ।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত