টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আটদফা দাবিতে চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের অবস্থান

চট্টগ্রাম, ০২ জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :  আট দফা দাবিতে চট্টগ্রাম কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছে ছাত্রলীগ। এদিকে শীতকালীন ছুটি শেষে শনিবার (২ জানুয়ারি) থেকে কলেজ খুললেও কোন ক্লাস অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।

শনিবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে কলেজে অবস্থাননিয়ে সমাবেশ করেছে নগর ছাত্রলীগ। সার্বিক পরিস্থিতি মোকাবিলায় কলেজ ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া কলেজের মূল ফটক ছাড়া অন্যান্য ফটকগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে।

সমাবেশ শেষে দুপুর ১টার দিকে ছাত্রলীগের ২৯ নেতাকর্মী নিজেদের রক্ত সিরিঞ্জ দিয়ে নিয়ে কলেজের প্রশাসনিক ভবনের ফ্লোরে ঢেলে দেন। এ সময় ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান দিতে থাকেন তারা। সঙ্গে ছিল কলেজ ক্যাম্পাস শিবিরমুক্ত করার দৃঢ়চেতনা।

নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি বলেন, ‘চট্টগ্রাম কলেজ ও মহসীন কলেজে শিবিরের জঙ্গি তৎপরতা ও দেশবিরোধী কর্মকাণ্ড ইতোমধ্যে দেশবাসী প্রত্যক্ষ করেছে। এখান থেকে পুলিশ অনেকবার অস্ত্র উদ্ধার করেছে। তারা এ দুটি কলেজকে মিনি ক্যান্টনমেন্ট বানিয়ে রেখেছিল। আমরা ইতোমধ্যে তাদের বিতাড়িত করে সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের অধিকার বাস্তাবায়নের কাজ শুরু করেছি। কলেজ সংসদে বঙ্গবন্ধু ও নেত্রীর ছবি টানিয়েছি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে আট দফা দাবির কথা জানায় নগর ছাত্রলীগ। ছাত্রলীগের আট দফা ‍দাবির মধ্যে আছে, কলেজ ক্যাম্পাসে স্থায়ী পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন, মূল ফটক ছাড়া বাকি ১৬টি প্রবেশপথ বন্ধ করে দেওয়া, ক্যাম্পাসের ভেতরে সব ধরনের আবাসিক স্থাপনা বন্ধ করে দেওয়া, শিবির ক্যাডারদের পৃষ্ঠপোষক হোস্টেল সুপার-মসজিদের ইমাম ও খতিবকে অপসারণ করা, অস্থায়ী ও খণ্ডকালীন কর্মচারীদের অপসারণ ও দোকান বন্ধ করে দেওয়া, তিন দশক ধরে ছাত্র সংসদের নামে আদায় করা অর্থের হিসাব সাধারণ শিক্ষার্থীদের সামনে উপস্থাপন, ছাত্রাবাস ও ছাত্রী নিবাসের নামে মিনি ক্যান্টনমেন্টগুলো বন্ধ করে দেওয়া এবং নাশকতা মামলার আসামি ছাত্রদের গ্রেফতার ও ছাত্রত্ব বাতিল।

মতামত