টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

আলীকদমে অপহনের ৪৫ ঘন্টার পর বোরহান উদ্দিনের লাশ উদ্ধার

এস.এম ইসমাইল হাসান
বান্দরবান প্রতিনিধি

Alikadam-Mardar-news-picচট্টগ্রাম, ১ জানুয়ারি (সিটিজি টাইমস) :বান্দরবানের আলীকদমে অপহরণের ৪৫ ঘন্টা পর উদ্ধার হল গত বুধবার রাত সাড়ে বারটায় অপহৃত বোরহান উদ্দিন (৫০) এর লাশ। গতকাল রাত আনুমানিক ৯টায় সেনাবাহিনী, পুলিশ ও স্থানীয়রা আলীকদম থানচি সড়কের ১৩ কিলোমিটার পয়েন্টের কামরাঙ্গা ঝিরি থেকে তার মৃত দেহ উদ্ধার করে। বোরহান উদ্দিন উপজেলার পানবাজার এলাকার মৃত লালাশাহ ফকির এর ছেলে।

সেনাবাহিনী সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় এক ত্রিপুরা ওই এলাকায় কাজ করতে গিয়ে আলীকদম-থানচি সড়ক হইতে প্রায় এক হাজার মিটার গভিরে একটি ছড়ার মধ্যে ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় বোরহান উদ্দিনের মৃত দেহ পড়ে থাকতে দেখে সেনাবাহিনীকে ফোন করে জানালে সেনাবাহিনী, পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন গিয়ে তার মৃত দেহ উদ্ধার করে।

গত বুধবার রাতে পাহাড়ে নিষিদ্ধ সদ্য আত্মসমর্পনকৃত মুরুং সন্ত্রাসী গ্রুপ “ম্রো ন্যাশনাল ডিফেন্স পার্টি” (এমএনডিপি)”র বিচ্ছিন্নতাবাদী কয়েকজন সন্ত্রাসী ১৩ কিলো এলাকার বোরহান উদ্দিনের খামার বাড়ি থেকে তাকে অপহরণ করে। তাদের কাছ থেকে অপহৃত বোরহান উদ্দিকে ছাড়িয়ে নিতে যায় ত্রিপুরা অপর এক সন্ত্রাসী পার্টি “শর্মা গ্রুপ”। এসম দু’পক্ষের মধ্যে চরম গোলাগুলির এঘটনা ঘটে। এতে এমএনডিপি’র এক সদস্য ও শর্মা গ্রুপের এক সদস্য নিহত হয়। নিহত এমএনডিপি’র সদস্য হলেন পার্শ্ববর্তী থানচি উপজেলার অবয় কারবারী পাড়ার লক্ষয় ম্রো, এর ছেলে সিংলক ম্রো (৩০), এবং অজ্ঞাতপরিচয় অপর ব্যক্তির নাম ঠিকানা জানা না গেলেও তাকে শর্মা গ্রুপের সদস্য বলে ধারণা করছে স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা জানায়, অপহরনকারীরা দীর্ঘদিন থেকে বোরহান উদ্দিনের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করে আসছে। কিন্তু চাঁদা না দেওয়ার কারণে তারা বোরহান উদ্দিনকে অপহরণ করে। ঘটনার বিষয় নিশ্চত করেন আলীকদম থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) অপ্পেলা রাজু নাহা।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত