টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নতুন বছরে বাচ্চার স্কুল নিয়ে ভাবছেন ??

M-02চট্টগ্রাম, ৩১ ডিসেম্বর (সিটিজি টাইমস):  বাচ্চাকে প্রথম স্কুলে ভর্তি করানোর সময় এগিয়ে আসতে শুরু করলে সব বাবা-মায়েরই দুশ্চিন্তা ও ভয় বাড়তে থাকে।

বাচ্চার বড় হওয়া, তাকে স্কুলে ভর্তি করা, তার পড়াশোনার সঠিক পরিবেশ তৈরি করা ইত্যাদি দায়িত্বগুলো একজন সচেতন বাবা মা হিসেবে আমাদের অত্যন্ত সতর্কতার সাথে করতে হয়। আর এইসব কাজগুলোর সর্বপ্রথম ধাপ হল আপনার বাচ্চার জন্য স্কুল নির্বাচন। এই একটি ব্যাপার আপনাকে ভীষণ দক্ষতা ও একইসাথে খুব মমতা নিয়ে করতে হয়। আপনার একটু অসতর্কতা বা অসচেতনতা আপনার বাচ্চার ভবিষ্যৎ নষ্ট করে দিতে পারে।

 বাচ্চার স্কুল নির্বাচনের সময় খেয়াল রাখবেন যে বিষয়টি। 

  • বাচ্চার জন্য স্কুল নির্বাচনের সময় আরও যে বিষয়টি মাথায় রাখবেন তা হল সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অতীত কার্যকলাপ ও শিক্ষার্থীদের প্রতি শিক্ষকদের আচরণের ধরণ। যখনই আপনি আপনার বাচ্চাকে কোন স্কুলে ভর্তি করলেন এর মানে হল নিজের সন্তানের সম্পূর্ণ ভবিষ্যৎটাই তাদের হাতে সমর্পণ করলেন। তাই এক্ষেত্রে কোন ঝুঁকি নেওয়া চলবে না।

বাচ্চাকে স্কুলে ভর্তির ব্যাপারে অন্য কারও কথার উপর ভরসা না করে নিজে গিয়ে ভালো করে খোঁজ খবর নিন। দেখে শুনে বুঝে তবেই আপনার বাচ্চাকে স্কুলে ভর্তি করুন।

M-03চট্টগ্রামে বাচ্চাদের সেরা স্কুল ” ম্যাগপাই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল “

 

” ম্যাগপাই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল ” এবং একজন অভিভাবকের স্কুল ভাবনা

জুমাইমার স্কুলঃ প্রি-স্কুল এবং আমার আতংক
আজ আমার মেয়ের বয়স হলো ৩বছর । ভাবতেই অবাক লাগে মাএ ৩বছর আগেও এই মেয়েটি আমার দুই হাতের তালুর মাঝে এক দলা মাংসের মতো শুয়ে থাকতো। আমি কেবল ভাবতাম, এতো ছোট এই বাচচাটি কি করে বড় হবে? কি ভাবে কোলে নিবো? কি নরম!! কোলে নিলেই মনে হতো হাত ফসকে পড়ে যাবে। কেউ কোলে নিলে আরও ভয় লাগতো!!! হায় হায় যদি ফেলে দেয়? একটু কাদঁলেই আমার অন্তর আত্মা কেঁপে উঠতো। কি হলো কি হলো ভেবে অস্হির হতাম।

আমার সেই মেয়ে এ বছর স্কুলে ভর্তি হলো……..স্কুলের নাম ” ম্যাগপাই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল “……… আহা কি আনন্দ আকাশে বাতাসে। ঠিক তাই , আমার মেয়ে স্কুলে যাচ্ছে ।

হ্যা ওকে ভর্তি করে দিলাম, ম্যাগপাই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এ । অনেক ভেবে টিচারের সাথে আলাপ করলাম। তিনি ওকে নিতে রাজি হলো। সেখান থেকে বের হয়ে কিছু অভিভাবক দের সাথে আলাপ করলাম।

M-04প্রথমে একটি গতানুগতিক স্কুলে গিয়েছিলাম সেখানে একজন অভিভাবক ( কৃতগ্যতা তার কাছে) আমাকে বিষদ বুঝিয়ে বললেন, নিয়ে গেলেন বাচচাদের ক্লাস রুমে। সিলেবাস দেখালেন!! সেই সিলেবাস দেখে আমি কঠিন ভাবে আহত হলাম।

আমেদের শিক্ষা ব্যবস্হা দেখে আমি সত্যি মর্মাহত। এই ছোট ছোট বাচ্চা গুলোকে এরা প্রথমেই এতো বেশি লোড দিচ্ছে যে, বাচ্চা গুলো পড়াশুনাকে এক জিবন্ত বিভিষিকা ছাড়া আর কিছুই মনে করতে পারবে না। এরা কোনও ভাবেই লিখাপড়াকে ভালোবাসতে পারবে না।

সিলেবাস দেখে আমি বাকিটুকু আর দেখি নাই। খুব ক্লান্ত বোধ হলো আমার। আমি যেনো নিজের দিব্য চোখে আমার সন্তানের শৈশব নষ্ট হতে দেখলাম। এতটুকু বাচ্চা এতো চাপ ব্রেনে নিবে কি করে??? কি করে এরা লিখাপড়াকে ভালোবসবে। প্রথমেই যদি এদের মাথায় লিখাপড়াকে বোঝা বানিয়ে চাপিয়ে দেওয়া হয়, তারা কি বোঝা নিয়ে সামনে এগুতে ভালোবাসবে?

পৃথিবীর আর কোনও দেশে এমন করে লিখাপড়া করানো হয় কিনা যানি না। যে সব আত্মিয় স্বজন দেশের বাহিরে আছে, তাদের দেখি বাচ্চাকে স্কুলে দিয়ে হাপছেড়ে বাঁচে। আর আমাদের দেশের অভিভাবকরা বাচ্চাকে স্কুলে দিয়ে যেনো স্বেচ্ছায় নদীতে ঝাপদেয়।

প্রি-স্কুল মানে হওয়া উচিৎ, ঘরের বিকল্প। যেখানে বাচ্চারা ঘরের অনুভূতি পাবে…এবং খেলার ছলে লিখাপড়া করবে। এবং নিজ থেকেই স্কুলকে ভালোবাসবে। আর আমাদের শিক্ষা ব্যবস্হা ঠিক এমন ভাবেই গঠিত, যে বাচ্চারা স্কুলকে অপছন্দ করেত বাধ্য।

দেশ ভরা পন্ডিত, তারা কেনও এসব নিয়ে ভাবছে না। এরা কেনও দেশের সন্তানদের ব্রেন-গুলোকে প্রাথমিক স্তরেই নষ্ট হয়ে যেতে দিচ্ছে। কচি কচি ঘাসের উপরে ১০ ইঞ্চি ইট চাপা দিলে দেখেছেনতো কি বিবর্ন-রুপ ধারন করে!!! তখন আপনি এদের কি বলবেন, ঘাস নাকি খর? কিছুই বলা যায়না। আমাদের সন্তানদের মাথায়ও আমরা প্রথমের ১০ ইঞ্চি ইট রেখে দিচ্ছি….কি হবে এদের ভবিষ্যৎ???

কিন্তু চট্টগ্রাম কলেজের পূর্ব গেইটে অবস্থিত “ম্যাগপাই” আমাকে আশান্বিত করেছে , বিমোহিত করেছে। যিনি স্কুল চালাচ্ছেন স্কুল প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আমান উল্লাহ, তার সাথে কথা বললাম , পরিবেশ দেখলাম তিনি বললেন আরও উন্নত করবেন। আমি বাচ্চাদের পাঠদান দেখলাম এবং জুমাইমার বাবাকে ফোন করেই জানিয়ে দিলাম আমাদের বাচ্চা ম্যাগপাইতেই পড়বে। কোন হোমওয়ার্ক নেই শুধু আনন্দ আর আনন্দ !!! সকালে ঘুম থেকে উঠেই স্কুল স্কুল করে চিৎকার আমাদের সবাইকে একটি বিষয় মনে করিয়ে দেয় আর সেটি হল কৃতজ্ঞতা !!! ধন্যবাদ ম্যাগপাই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল।

জান্নাত জাহান
জুমাইমার আম্মু
আইনজীবী

ম্যাগপাই ইন্টারন্যাশনাল স্কুল একটি বিশ্ব মানের স্কুল, ছোটদের জন্য চট্টগ্রামের সবচেয়ে সেরা স্কুল । চট্টগ্রাম কলেজের পূর্ব গেইটে স্কুলটি অবস্থিত । প্লে গ্রুপ থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্র- ছাত্রী ভর্তি চলছে …

প্লে গ্রুপে দুই বছর চার মাসের অধিক বয়সের বাচ্চা ভর্তি নেওয়া হয়। আরও জানুন – 01764440092 এই নাম্বারে কল করে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত