টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

রাউজানে নির্বাচনী প্রচারণায় আ’লীগ-বিএনপি’র সম্প্রীতি

এস.এম. ইউসুফ উদ্দিন
রাউজান প্রতিনিধি 

RAozan-Gono-sangjog-pic-21চট্টগ্রাম, ২২ ডিসেম্বর (সিটিজি টাইমস): চট্টগ্রামের রাউজানে আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে বড় দুই দলের মনোনীত মেয়র প্রার্থী পৃথক ভাবে প্রচারণা চাললেও দেখা হলেই কুশল বিনিময়-কোলাকুলি করতেও ভুলছেন না। গত সোমবার বিকেলে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্র্ডে আ’লীগ-বিএনপি’র দুই প্রার্থী একে অপরকে দেখে গাড়ি থেকে রাস্তায় নেমে কুশল বিনিময়-কোলাকোলি করেন। এমন দৃশ্য দেখে প্রধান দুই রাজনৈতিক দলের নেতাকমীদের মাঝে আনন্দঘন মুহুর্তে পরিণত হয়। তাৎক্ষনিক নির্বাচনী আমেজ বেড়ে যায় কয়েকগুণ। কয়েক মিনিটের এ মুহুর্ত শত বছরের সম্প্রীতির বন্ধন হয়ে থাকুক এমনটাই প্রত্যাশা পৌর নাগরিকদের।

প্রচারণায় সম্প্রীতি দেখে মুগ্ধ দু’দলের নেতাকর্মী আর সাধারণ জনগণ। প্রচারণায় সম্প্রীতি যোগ হয়ে সাধারণ ভোটারদের মাঝে ছড়িয়ে পড়েছে পৌর নির্বাচনের ভোটের হাওয়া। সরকারি সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ায় দলীয়ভাবে একক প্রার্থী নির্ধারণ করে আওয়ামীলীগ-বিএনপি। যার কারণে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা এখন ভোটারদের মন জয় করে ভোটারদের ধারে ধারে গিয়ে নজর কাড়ার সেই কৌশল আঁকতে শুরু করেছেন। পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চার মেয়র প্রার্থীর বিরাহীন গণসংযোগ অব্যহত রেখেছেন। প্রচারণার অংশ হিসেবে পৌর এলাকার আনাচে-কানাচে চষে বেড়াচ্ছেন তারা। নির্বাচনী প্রচারণায় হঠাৎ আ’লীগ-বিএনপি’র প্রার্থীর কুশল বিনিময়-কোলকোলির দৃশ্য চোখে পড়বে কল্পনাও করেননি অনেকে। আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী দেবাশীষ পালিত (নৌকা) ও বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থী কাজী আব্দুল্লাহ আল হাসান (ধানের শীষ) প্রতীক নিয়ে সুলতানপুর ছিটিয়া পাড়া এলাকায় গণসংযোগ করতে গিয়ে একে অপরের সমানা-সামনি হয়ে পড়ে, এসময় আওয়ামীলীগের প্রার্থী দেবাশীষ পালিতকে বিএনপি’র প্রার্থী কাজী আবদুল্লাহ আল হাসান একে অপরকে জড়িযে ধরে কুশল বিনিময়-কোলাকোলি করেন। আ’লীগ-বিএনপি’র প্রার্থীর কুশল বিনিময়-কোলাকোলির বিষয়ে গতকাল সোমবার পৌর এলাকা জুড়ে চলে আলোচনা-সমালোচনা। ভোটারদের অভিমত, এবারের নির্বাচনে এখানে আ’লীগ-বিএনপি’র দুই প্রার্থীর ভোটযুদ্ধ হবে। কেউ কেউ বলছেন, পৌর এলাকায় উপজেলা আ’লীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর পুত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা (জগ প্রতীক)’র জনপ্রিয়তা থাকায় তাঁর সাথে বিএনপির ভোটযুদ্ধ হবে। নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা পৌরসভার অনাচে-কানাচে গণ সংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। তার সাথে পাল্লা দিয়ে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মীর মুহাম্মদ মনসুর (মোবাইল প্রতীক) । তবে চার মেয়র প্রার্থীর মধ্যে কে হচ্ছেন পৌর মেয়র? এমন প্রশ্নের উত্তর জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। আগামী ৩০ ডিসেম্বর রাউজান পৌরসভা নির্বাচনে ২৩ হাজার ৪শ’৩৩ জন পুরুষ ও ২১ হাজার৬শ’৮৬ জন মহিলা ভোটারসহ মোট ভোটার ৪৫ হাজার ১শ’১১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

মতামত