টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে মেয়র পদে ৪৬ প্রার্থীই বৈধ

চট্টগ্রাম, ০৫ ডিসেম্বর (সিটিজি টাইমস)::  চট্টগ্রামে ১০ পৌরসভায় মেয়র পদে দাখিল করা ৪৬ প্রার্থীর মনোনয়নই বৈধ। যাচাই-বাছাই শেষে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় রিটার্নিং কর্মকর্তারা এই বৈধতা ঘোষণা করেন।

চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. খোরশেদ আলম শনিবার রাতে সাংবাদিকদের জানান, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে মেয়র পদে ৪৬ প্রার্থীই বৈধতা পেয়েছেন। আজ রবিবার সংরক্ষিত ও সাধারণ কাউন্সিলরদের চূড়ান্ত তালিকা ঘোষণা করা হবে।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে পাওয়া তথ্যে জানা যায়, ৪৬ প্রার্থীর মধ্যে রাজনৈতিক দলের ব্যানারে ২৯ জন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ১৭ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এরমধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ১০ পৌরসভায় একক ও বিএনপির নয় পৌরসভায় প্রার্থী দিয়েছেন। জাতীয় পার্টি পাঁচ, ইসলামী ফ্রন্ট তিন, এলডিপি ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ একজন করে প্রার্থী দিয়েছেন। তবে স্বতন্ত্র ১৭ প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থীদের সংখ্যাই বেশি।

রিটার্নিং কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যায়, রাঙ্গুনিয়া পৌরসভায় মেয়র পদে আটজন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। তারা হলেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মো. শাহজাহান শিকদার, বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন শাহ, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক কামরুল ইসলাম চৌধুরী, সাবেক মেয়র ও উত্তর জেলা বিএনপি নেতা নুরুল আমিন তালুকদার, ইসলামী ফ্রন্টের মাওলানা আবদুর রহমান জামী, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. ইমাম হোসেন, মো. মফিজুল ইসলাম ও মো. মোজাম্মেল হোসেন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।

রাউজানে মেয়র পদে ছয়জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী দেবাশীষ পালিত, বর্তমান মেয়র-উত্তর জেলা বিএনপি সদস্য সচিব কাজী আবদুল্লাহ আল হাছান, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জমা দেন সাবেক মেয়র শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর পুত্র উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, সদস্য স্বপন দাশগুপ্ত, সাবেক চেয়ারম্যান মীর মো. মনসুর আলম।

মিরসরাইয়ে মেয়র পদে পাঁচজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। তাঁরা হলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন, বিএনপির প্রার্থী এ জেড এম রফিকুল ইসলাম পারভেজ, জাতীয় পার্টির এরশাদ উল্ল্যাহ, ইসলামী আন্দোলনের বাংলাদেশের প্রার্থী মোহাম্মদ আরিফ মাঈন উদ্দিন ও মোজাহার হোসেন চৌধুরী সোহেল (স্বতন্ত্র)।

বারৈয়ারহাট পৌরসভা মেয়র পদে চার প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী নিজাম উদ্দিন প্রকাশ ভিপি নিজাম, বিএনপির প্রার্থী মঈন উদ্দিন লিটন। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম খোকন ও পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফজলুল করিম লিটন।

সীতাকুন্ডে মেয়র পদে ছয় প্রার্থী মনোনায়নপত্র দাখিল করেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থী বদিউল আলম, বিএনপির প্রার্থী সৈয়দ আবুল মনসুর, জাতীয় পার্টির মো. নুরুন্নবী ভূঁইয়া, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দেন বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ নেতা নায়েক (অব.) শফিউল আলম, পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিরাজ-উদ-দৌলা, জামায়াতের পৌর আমির তাওহিদুল হক চৌধুরী।

সন্দ্বীপে মেয়র পদে দুই প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগের জাফর উল্লাহ ও বিএনপির আজমত উল্লাহ বাহাদুর।

সাতকানিয়া মেয়র পদে তিনজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী দক্ষিণ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. জোবায়ের, সাতকানিয়া পৌরসভা বিএনপির সভাপতি হাজি রফিকুল আলম ও জাতীয় পার্টির উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. ইউছুপ চৌধুরী।

চন্দনাইশ মেয়র পদে চারজন মনোনয়ন ফরম জমা দেন। তারা হলেন আওয়ামী লীগের জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম খোকা, এলডিপির প্রার্থী বর্তমান মেয়র মো. আইয়ুব, ইসলামী ফ্রন্টের প্রার্থী মো. আবদুল হাকিম, স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. জসিম উদ্দিন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।

বাঁশখালীতে মেয়র পদে তিনজন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম জমা দেন। তারা হলেন বিএনপির মো. কামরুল ইসলাম হোসাইনী, আওয়ামী লীগের সেলিমুল হক চৌধুরী, জাতীয় পার্টির মো. ইব্রাহিম আল হোছাইন।

পটিয়ায় মেয়র পদে পাঁচজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। তারা হলেন, আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র ও পৌরসভা আ.লীগের সভাপতি অধ্যাপক হারুনুর রশীদ, বিএনপির জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক তৌহিদুল আলম, জাতীয় পার্টির জেলা জাপা সভাপতি সাবেক মেয়র শামসুল আলম মাস্টার, ইসলামী ফ্রন্টের আবু তাহের মোজাহাদী, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি (এনাম গ্রুপ) কাউন্সিলর মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

মতামত