টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে ১০ মেয়র পদে ৪৬ প্রার্থী

চট্টগ্রাম, ০৩ ডিসেম্বর (সিটিজি টাইমস):: আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামের দশ পৌরসভা নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য মেয়র পদে ৪৬ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ।এছাড়াও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৮৬ জন ও সাধারন কাউন্সিলর পদে ৩৮৭ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।


বৃহস্পতিবার মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিনে স্ব স্ব উপজেলা নির্বাহী কর্মকতাদের অফিসে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন প্রার্থীরা।


এর আগে, চট্টগ্রামের দশ পৌর এলাকায় নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য মেয়র পদে ৫১ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৯০ জন ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪২৮ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন।


নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামের দশটি পৌর নির্বাচনী এলাকায় মেয়র পদে ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগের সর্বোচ্চ ১৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন। এছাড়া স্বতন্ত্র থেকে ১৩ জন, বিএনপি থেকে ৯ জন, জাতীয় পার্টি থেকে ৫ জন, ইসলামী ফ্রন্ট থেকে ৩ জন এবং ইসলামী শাসনতন্ত্র ও এলডিপি থেকে এক জন করে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।


এদিকে, মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিনে সকাল থেকে উৎসবমুখর পরিবেশে স্ব স্ব পৌর এলাকার উপজেলা নির্বাহী কর্মকতাদের অফিসে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন মেয়র, সংরক্ষিত কাউন্সিলর ও সাধারণ কাউন্সিলর পদের মনোনয়ন প্রার্থীরা। তবে মনোনয়নপত্র দাখিলকে কেন্দ্র করে কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানা যায়।


চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশনের বিভাগীয় প্রধান আব্দুল বাতেন বলেন, পৌর নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ মনোনয়নপত্র দাখিলকে কেন্দ্র করে কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। আগামী ৮-১০ এ তিনদিন প্রার্তীরা আপীল দায়ের করতে পারবেন। পরের তিনদিন আপীল নিষ্পত্তি করা শেষে ১৩ তারিখে প্রত্যাহার করার সুযোগ পাবে। এরপর আগামী ১৪ তারিখে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে বলে জানান এ কর্মকর্তা।

চট্টগ্রাম জেলার ১০ পৌরসভার নয়টিতেই নিজেদের মেয়র প্রার্থী দিলেও চন্দনাইশে শরীক দল এলডিপিকে ছেড়ে দিয়েছে বিএনপি। তবে বিএনপির পক্ষ থেকে অন্য শরিক দল জামায়াতকে চট্টগ্রামে কোনো পৌরসভায় ছাড় দেয়া হয়নি।

বিএনপির চূড়ান্ত মনোনয়ন প্রাপ্তরা হলেন, মিরসরাইয়ে রফিকুল ইসলাম পারভেজ, বারৈয়ারহাটে মাইনুদ্দিন লিটন, সীতাকুণ্ডে আবুল মনছুর, সন্দ্বীপে আজমত আলী বাহাদুর, রাঙ্গুনিয়ায় হেলাল উদ্দিন, রাউজানে বর্তমান মেয়র কাজী আব্দুল্লাহ আল হাসান, সাতকানিয়ায় রফিকুল আলম, বাঁশখালীতে কামরুল ইসলাম হোসাইনী, এবং পটিয়ায় তৌহিদুল আলম। এছাড়া চন্দনাইশ পৌরসভায় জোটের শরিক দল এলডিপির প্রার্থী বর্তমান মেয়র আইযূব কুতুবীকে বিএনপির পক্ষ থেকে সমর্থন দেয়া হয়েছে।

বিএনপি চট্টগ্রামের ১০টির মধ্যে ৮টিতে একক প্রার্থী নিশ্চিত করলেও দুটিতে তিনজন বিদ্রোহী প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন। রাঙ্গুনিয়ায় দলের মনোনয়ন না পেয়ে সাবেক পৌর মেয়র উত্তর জেলা বিএনপি নেতা নুরুল আমিন তালুকদার এবং বিএনপি সমর্থক মফিজুল ইসলামও মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এছাড়া পটিয়ায় বিএনপি নেতা ইব্রাহীম সওদাগর বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

এদিকে, চট্টগ্রামে ১০ পৌরসভার মধ্যে সাতটিতে মেয়র পদে একক প্রার্থী নিশ্চিত করতে পারলেও তিনটিতে বিদ্রোহ ঠেকাতে পারেনি ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগ।  চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় একজন এবং রাউজান ও সীতাকুণ্ডে দু’জন করে চারজন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

তবে দলীয় সূত্রে জানা যায়, আওয়ামী লীগে চূড়ান্তভাবে মনোনয়নপ্রাপ্ত ১০ মেয়র প্রার্থীরা হলেন, পটিয়ায় বর্তমান পৌর মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, চন্দনাইশে মাহবুবুল আলম খোকা, সাতকানিয়ায় মোহাম্মদ জোবায়ের, বাঁশখালীতে সেলিমুল হক চৌধুরী, মিরসরাইয়ে গিয়াস উদ্দিন, বারৈয়ারহাটে নিজাম উদ্দিন চৌধুরী রাউজানে দেবাশীষ পালিত, সন্দ্বীপে বর্তমান মেয়র জাফরুল্লাহ টিটু, রাঙ্গুনিয়ায় শাহজাহান শিকদার এবং সীতাকুণ্ডে বদিউল আলম।

উল্লেখ্য, এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচন কমিশনে ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ৩০ ডিসেম্বর পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত