টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নিজামীর আইনজীবী দোষ স্বীকার করে সাজা কমাতে বলেছেন: অ্যাটর্নি জেনারেল

চট্টগ্রাম, ০২ ডিসেম্বর (সিটিজি টাইমস):: অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের দায়ে স্বীকার করে সাজা কমানোর আবেদন জানিয়েছেন।

বুধবার সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগে নিজামীর আবেদনের বিপক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে সাংবাদিকদের কাছে একথা বলেন।

মাহবুবে আলম বলেন, ‘উনারা (আসামিপক্ষ) যা সাবমিশন করেছেন, আমি যা বুঝেছি, তাতে আমার মনে হলো- জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে তাদের শীর্ষ আইনজীবীরা এই প্রথম তাদের অভিযুক্ত একজন নেতা যে অপরাধী, তা তারা স্বীকার করে নিলেন এবং স্বীকার করে নিয়ে শুধু মৃত্যুদণ্ডের হাত থেকে অব্যাহতি পাওয়ার জন্য আবেদন করলেন।’

তিনি বলেন, ‘বক্তব্য শেষ করার শেষ প্রান্তে উনাদের শীর্ষ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন যেটা বলেছেন, ‘এটা তো ঐতিহাসিক ঘটনা যে খুন বা মানুষ হত্যা এগুলো হয়েছে এবং এগুলোর সঙ্গে সহযোগিতা করেছে সেই সময়ের জামায়াতে ইসলামী। মতিউর রহমান নিজামী তার বিশ্বাস থেকেই এগুলো সমর্থন করেছেন।’

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘শেষ মুহূর্তে খন্দকার মাহবুব বলেছেন- এগুলো যদি (নিজামী) করেও থাকেন, তবু বয়সের কথা চিন্তা করে তাকে মৃত্যুদণ্ড থেকে অব্যাহতি দেওয়ার অনুরোধ করছেন তিনি।’

তিনি বলেন, ‘ফৌজদারি মোকদ্দমায় এটা একটা আসামি বিকল্প আর্গুমেন্ট সব সময় করতে পারে। তারা ফ্যাক্টের ব্যাপারে অস্বীকার করে আবার অল্টারনেটিভলি একথাও বলতে পারেন, হ্যাঁ, এগুলো করেছেন ঠিকই। তারপর আমি মৃত্যুদণ্ডের হাত থেকে রক্ষা পেতে চাই।’

মাহবুবে আলম বলেন, ‘সাজা বাড়ানো-কমানো আদালতের ব্যাপার। তবে সাজা কমবে- এটা আমি বিশ্বাস করি না।’

বুধবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বে চার সদস্যের আপিল বেঞ্চে নবম দিনের শুনানি হয়। এদিন নিজামীর আইনজীবীরা তাদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেন।

এরপর রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম যুক্তি উপস্থাপন শুরু করেন। কিছুক্ষণ উপস্থাপনের পর আদালত আগামী ৭ ডিসেম্বর আবারো এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তি আদালতের সামনে তুলে ধরার দিন ঠিক করে আজকের মত কার্যক্রম মুলতবি করে।

মতামত