টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নিরাপত্তার স্বার্থেই ঘরোয়া বৈঠকে অনুমতির ব্যবস্থা

চট্টগ্রাম, ০১ ডিসেম্বর (সিটিজি টাইমস)::  পৌর নির্বাচনে ঘরোয়া বৈঠকের জন্য প্রার্থীদের ২৪ ঘণ্টা আগে অনুমতি নেওয়ার বিধান নিরাপত্তার স্বার্থেই করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর শেরে বাংলানগরে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

এই নির্বাচন কমিশনার দাবি করেন, পৌর নির্বাচনে কমিশন চরমভাবে নিরপেক্ষতা দেখাচ্ছে এবং আগামীতেও তা দেখাবে। তিনি আরো বলেন, কারো চাপে নয়, নিরপেক্ষতার স্বার্থেই রাজনৈতিক দলের দাবিগুলো মানা সম্ভব হয়নি।

শাহনেওয়াজ বলেন, ‘আমরা আগে থেকে বলে এসেছি ডিসেম্বরে ভোট করব। এখন কেউ যদি বলে আমরা তাড়াহুড়া করে তফসিল করেছি, কারো নির্দেশে তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে— এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা, অসত্য কথা।’

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, ৩০ ডিসেম্বর ২৩৬ পৌরসভায় ভোট হবে। এতে মেয়র পদে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হওয়ার আইন থাকলেও কাউন্সিলর পদে ভোট হবে নির্দলীয় প্রতীকে।

তফসিল অনুসারে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩ ডিসেম্বর। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ৫ ও ৬ ডিসেম্বর এবং প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৩ ডিসেম্বর।

এরই মধ্যে পৌর নির্বাচন অন্তত ১৫ দিন পেছাতে নির্বাচন কমিশনে দাবি জানিয়েছিল বিএনপি। তবে সোমবার কমিশন সভায় ওই দাবি নাকচ করে দেয় ইসি।

এ নিয়ে বিএনপির পক্ষে মঙ্গলবার দলটির মুখপাত্র আসাদুজ্জামান রিপন অভিযোগ করে বলেন, ‘বর্তমান ইসি একচোখা; তারা ভোটার ও জনগণের দিকে তাকায় না, শুধু সরকারের দিকে তাকিয়ে থাকে। সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সংশয় রয়েছে।’

ভোট না পেছানোয় ইসি সিদ্ধান্তের কঠোর সমালোচনাও করেন তিনি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে নির্বাচন কমিশনার শাহনেওয়াজ বলেন, ‘এ অভিযোগ সম্পূর্ণ অসত্য। আমরা সম্পূর্ণ নিরপেক্ষ। নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর হবে।’

কোনোভাবে তাড়াহুড়া করে তফসিল ঘোষণা করা হয়নি বলেও জানান তিনি।

ভোটের তারিখ না পেছানোর ব্যাখ্যা তুলে ধরে এই নির্বাচন কমিশনার জানান, সামনে বিশ্ব ইজতেমা, হালনাগাদের চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ রয়েছে, এসএসসি পরীক্ষা রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ‘তফসিলের পর বিধি সংশোধন হবে বে-আইনি, আবার পুনঃরায় তফসিল দিতে হবে, যা আমাদের পক্ষে সম্ভব না। সুষ্ঠু ভোট আয়োজনের জন্য যা যা করার দরকার করে যাব।’

নির্বাচনী আচরণবিধি প্রার্থীদের কঠোরভাবে মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে শাহনেওয়াজ বলেন, যারা এখনো আগাম প্রচারণার পোস্টার ব্যানার সরিয়ে ফেলেননি তাদের বিরুদ্ধে শিগগিরই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আগের নির্বাচনে যেসব অনিয়ম হয়েছিল কমিশন তা থেকে শিক্ষা নিয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

গত ২৪ নভেম্বর পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশন কাজী রকিবউদ্দিন আহমদ।

মতামত