টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

তামিমকে গালিগালাজ : দোষ প্রমাণিত হলে শাস্তি

চট্টগ্রাম, ২৪ নভেম্বর (সিটিজি টাইমস):: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) তৃতীয় আসরের দ্বিতীয় দিনেই (সোমবার) বিপত্তি ঘটেছিল। সিলেট সুপারস্টার্সের ২ বিদেশী খেলোয়াড়ের অনাপত্তিপত্র প্রদানে বিলম্ব হওয়ায় তৈরি হয়েছিল অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার। যার রেশ ধরে বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার ও চিটাগাং ভাইকিংসের অধিনায়ক তামিম ইকবালকে গালিগালাজ করেছিলেন সিলেট সুপারস্টার্সের মালিক। ম্যাচশেষে সংবাদ সম্মেলনেই সেই অভিযোগ করেছিলেন স্বয়ং তামিম ইকবালই। বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারেই নিয়েছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। এ বিষয়ে উভয়পক্ষের বক্তব্য শুনে কারো বিরুদ্ধে দোষ প্রমাণিত হলে ছাড় দেওয়া হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য শেখ সোহেল।

মঙ্গলবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে অনানুষ্ঠানিক ব্রিফিংয়ে শেখ সোহেল বলেছেন, ‘এখানে তদন্তের ব্যাপার আছে। শতভাগ তদন্তের পর বোঝা যাবে কী হয়েছে। তদন্তের মাধ্যমে কারো বিরুদ্ধে দোষ প্রমাণিত হলে এক ইঞ্চিও ছাড় দেওয়া হবে না।’

খুব দ্রুতই এ তদন্ত সমাপ্ত হবে বলেও আশা প্রকাশ করেছেন শেখ সোহেল। তবে প্রতিদিন ২টি করে ম্যাচ থাকায় বিষয়টি তদন্তে কিছুটা সময় লাগছে বলেও জানান তিনি।

বিসিবির এই কর্মকর্তা বলেছেন, ‘প্রতিদিন দু’টি করে খেলা আছে। তদন্তের জন্য সাময় প্রয়োজন। সবার সঙ্গে কথা বলতে হবে। যারা প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন তাদের বক্তব্যও শুনব। যার মধ্যে খেলোয়াড়রাও রয়েছেন। কিন্তু দু’টি করে খেলা থাকায় সবার সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পাওয়া যাচ্ছে না। আশা করছি, ৩-৪ দিনের মধ্যেই এ বিষয়ে তদন্ত শেষ করা সম্ভব হবে।’

শেখ সোহেল অবশ্য উভয়পক্ষের আচরণেই হতাশা প্রকাশ করেছেন। তার মতে, দল হিসেবে সিলেট সুপারস্টার্স ও চিটাগাং ভাইকিংস যে আচরণ করেছে তা সত্যি হতাশাজনক।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

One comment

  1. নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে দ্রুত বিচারের মুখামুখি করান । যেন ভবিষ্যতে পয়সাওয়ালা ভাব না দেখায় ।

মতামত