টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

অনেকটা গোপনেই খালেদার সাথে সাকার পরিবারের সাক্ষাৎ

চট্টগ্রাম, ২২  নভেম্বর (সিটিজি টাইমস):  মানবতা বিরোধী অপরাধে ফাঁসি কার্যকর হওয়া বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর পরিবারকে সুরক্ষা দেবেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি তার পরিবারের পাশে থাকবেন। মানবতাবিরোধী অপরাধের বিষয়টি স্পশকাতর হলেও খালেদা জিয়া এ ক্ষেত্রে পিছু হটবেন না।বিএনপির একটি সূত্র এমন তথ্য জানিয়েছে।

সূত্র জানায়, শনিবার খালেদা জিয়া লন্ডন থেকে গুলশানের বাসভবনে ফেরার কিছু পর অনেকটা গোপনেই সাকার পরিবারের সদস্যরা বাসভবন ফিরোজায় তার (খালেদা জিয়া) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।এসময় পরিবারের সদস্যদেরকে সান্তনা জানিয়ে তিনি বলেছেন, ধৈর্য ধরো। আল্লাহ এর বিচার করবেন। হতাশ হয়ে যেয়ো না। চূড়ান্ত ফয়সালা আল্লাহ তায়ালার হাতে।

সূত্র জানায়, ফাঁসির কার্যকরের আগে কারাগার থেকে যখন সাকা চৌধুরীর পরিবারের সদস্যদেরকে শেষ সাক্ষাৎতের জন্য ডাকা হয়। তখন কারাগারে যাওয়ার আগে সাকা চৌধুরীর স্ত্রী, ছেলেসহ পরিবারের কয়েকজন সদস্য খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গুলশানের বাসভবন ফিরোজাতে যান। এসময় খালেদা জিয়াকে জড়িয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন সাকা চৌধুরীর স্ত্রী ফারহাত কাদের চৌধুরী। তখন পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে নানাভাবে সাকার পরিবারের সদস্যদেরকে সান্তনা দেন খালেদা জিয়া। পরবর্তীতে খালেদা জিয়ার বাসভবন থেকে কেন্দ্রীয় কারাগারের দিকে যান সাকার পরিবার।

এর আগে সাকা চৌধুরীর চূড়ান্ত ফাঁসির আদেশের পর বিএনপি নেতারা এই রায় রাজনৈতিক বলে মন্তব্য করেন। স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ন্যায় বিচার পেলে সাকা বেকসুর খালাস পেতেন।

এদিকে, বিভিন্ন ইস্যুতে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন সংবাদ সম্মেলন করলেও সাকা চৌধুরীর ফাঁসির আদেশের পর গুলশান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এসময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ন্যায় বিচার পাননি দাবি করে দলের মুখপাত্রের দায়িত্বে থাকা আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, রাজনৈতিক বিবেচনায় এ রায় দেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ব্যক্তির অপরাধ নয়, রাজনৈতিক বিবেচনায় এ রায় দেয়া হয়েছে। সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী নিজেকে নির্দোষ প্রমানের জন্য বিভিন্ন দলিলাদি উপস্থাপন করলেও তা বিবেচনায় নেয়া হয়নি। মানবতাবিরেধী অপরাধের বিচার সমর্থন করেন জানিয়ে রিপন বলেন, একজন নাগরিক হিসেবে তার মৌলিক অধিকার মানবাধিকার রক্ষা হয়নি। তার দলিলাদি আমলে নেয়া হলে তিনি ন্যায় বিচার পেতেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এম ওসমান ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম আকবর খন্দকার, ফজলুল হক মিলন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহ আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিতাই চন্দ্র রায়, সহ দফতর সম্পাদক আবদুল লতিফ জনি, শামীমুর রহমান শামীম প্রমুখ।

এদিকে, সাকার ফাঁসির রায় কার্যকরের প্রতিবাদে প্রকাশ্যে কোন কর্মসূচি ঘোষণা না করলেও সাকার পরিবারকে পাশে রাখবে বিএনপি। বিএনপির বিভিন্ন সূত্র থেকে এরকম তথ্যই জানা গেছে।-জাগোনিউজ

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত