টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নারীর ঘৃণার তালিকায় পুরুষের ১০টি অভ্যাস

১. টেলিভিশনের পোকা নারী-পুরুষ সবাই। একটানা সারা বেলা খেলার অনুষ্ঠান দেখাটা বিরক্তিকর হলেও, ভবিষ্যতের টপ মডেল বা গ্রেস অ্যানাটমি দেখার চেয়ে অনেক বেশি ভালো। নারীদের কাছে মনে হয়, পুরুষরা যত বড় টিভির পর্দা পছন্দ করেন, তাদের মস্তিষ্কটা বিপরীতভাবে ততটাই ছোট।

২. যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল ফোন, একটি ব্যাটারি, একটি চার্জার আর একটি ডেটা ক্যাবলই যথেষ্ট। কিন্তু অনেক পুরুষের টেবিলের ড্রয়ারে পুরনো মোবাইলের তার, ব্যাটারিতে পরিপূর্ণ থাকে। তাতে জমে থাকে মাকড়সার জাল। তা ছাড়া বাড়ির প্রতিটি ঘরেই ফোনের ওয়্যারলেস সংস্করণ বা ইন্টারকমে পরিপূর্ণ। এসব বিষয় ব্যাপক অপছন্দ মেয়েদের।

৩. সব পুরুষই বাড়িতে হালকা প্রকৃতির ছোঁয়া পছন্দ করেন। কিন্তু কোন ধরনের প্রকৃতি ঠাঁয় পাবে তা নিয়ে আপত্তি রয়েছে নারীদের। এ ব্যাপারে পুরুষদের অতি মাত্রায় মাতব্বরি একদমই পছন্দ নয় নারীদের।

৪. খাওয়ার পর বাসন-কোসন পরিষ্কারের কাজে অনেক পুরুষই এগিয়ে আসেন। কিন্তু তার যখন শুধু নিজের খাবারের থালাটা ধুয়ে বাকিগুলো ভিজিয়ে রাখেন, তখন গা জ্বলে যায় মেয়েদের।

৫. নিজের মেহমান আসলে মজার খাবারের আয়োজন করে পুরুষরা। কিন্তু সেগুলো গরম করা, পরিবেশন করা এবং উঠিয়ে রাখার কাজটি মেয়েদের ওপরেই বর্তায়। ছেলেদের এই অভ্যাসটি ঘৃণা করেন মেয়েরা।

৬. এই বিল সেই বিল দেওয়ার জন্য পয়সা আলাদা করে রাখতেই পছন্দ করেন পুরুষরা। কিন্তু সে জন্য এখানে-ওখানে বিলের কাগজের সঙ্গে টাকা-পয়সা জড়িয়ে ফেলে রাখার ঝক্কি সামলাতে হয় মেয়েদের। তাই এ বিষয়ে ব্যাপক আপত্তি তাদের।

৭. সকালে নাস্তা করতে বসে কোনো একটা আইটেম শেষ হয়ে গেলে চটে যাওয়া এবং ওটা আনতে সঙ্গিনীকে অনুরোধ করা। নিজের ব্যস্ততার অজুহাত দেখিয়ে নারীদের ঘাড়ে এ দায়িত্ব চাপানো মোটেও পছন্দ নয় মেয়েদের।

৮. সন্তানের লালন পালন মানে তাদের নিয়ে বিকেলে শিশু পার্কে যাওয়াই নয় বা কাছে ডেকে নিয়ে এক সঙ্গে বসে কার্টুন দেখা নয়। নারীরা ছোট থেকে বড় করতে যে ঝামেলা পোহান, তার সঙ্গে পুরুষদের এসব কাজের তুলনা হাস্যকর। তাই বাচ্চা সামলাতে হলে মেয়েদের মতো দায়িত্ব পালন করতে হবে। নামমাত্র সময় দেওয়াকে বেজায় ঘৃণা করেন নারীরা।

৯. নারীদের অভিযোগ, ছেলেরা কী বোঝে যে গোসল করে ভেজা তোয়ালে জড়িয়ে কার্পেটের ওপর দাঁড়ানো ঠিক না বা কাপড় পরার আগে তা ছুড়ে বিছানায় ফেলে দেওয়াটা কতটা বিরক্তিকর? ওটা বাথরুমেই ফেলে আসাটা উচিত, নয়তো বারান্দার রেলিংয়ে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত