টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবেঃ মহিউদ্দিন চৌধুরী

aচট্টগ্রাম, ১৯ নভেম্বর (সিটিজি টাইমস):  জামায়াত-শিবিরকে হরতালের নামে নাশকতা ছেড়ে দিয়ে সাবধান হয়ে যেতে বলে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেন, সংবিধান সম্মতভাবে আইনানুগ বিচারিক প্রক্রিয়ায় সর্বোচ্চ আদালতের যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির রায় ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। এই রায়ের বিরুদ্ধে যারাই অবস্থান নেবে তারা ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজার দারুল ফজল মার্কেটের দলীয় কার্যালয়ে হরতাল বিরোধী এক সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন ।

মহিউদ্দিন চৌধুরী সমাবেশে বলেন, দেশদ্রোহী যুদ্ধাপরাধীদের বিরুদ্ধে দেশের আইন অনুযায়ি সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুন্ডের রায় দিয়েছে আদালত। এই রায়ের বাস্তবায়ন দেখতে অপেক্ষায় আছে দেশের জনগন। কিন্ত জামায়াত-শিবিররা এই দেশকে ইহুদি রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য হরতালের নামে দেশে নাশকতার পরিকল্পনা করছে। দেশের মানুষ এই মৌলবাদী শক্তিকে মেনে নেবে না। তাদের প্রতিহত করবে।

তিনি জামায়াত-শিবিরকে নাশকতা পরিহার করার আহবান জানিয়ে বলেন, তা না হলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে । দেশ সংবিধান অনুযায়ী পরিচালিত হচ্ছে । কেউ যদি নাশকতা-হামলার মাধ্যমে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরী করে তাহলে তাদেরকে দেশের আইন ও জনগন ছাড় দিবে না ।

মহিউদ্দিন চৌধুরী আরো বলেন, নগরীতে বাসা ভাড়া দেওয়ার আগে বাড়ির মালিকদের নিশ্চিত হতে হবে তার ভাড়াটে জঙ্গী বা নাশকতাকারী কিনা। যাতে নাশকতাকারীরা ছদ্মবেশে তাদের কর্মকান্ড চালাতে না পারে, তার জন্য বাড়ির মালিকদের ভাড়াটেদের ওপর নজর রাখতে হবে ।

সমাবেশে মুখ্য আলোচক হিসেবে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয় আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, জামায়াত-শিবির স্বাধীন দেশকে পাকিস্তানের মতো জঙ্গি রাষ্ট্রে পরিণত করতে ষড়যন্ত্র করছে । দেশকে রক্ষা করার মতো নাগরিককের অভাব নেই। যেখানে নাশকতার পরিকল্পনা করা হবে সাথে-সাথে তাদেরকে প্রতিহত করা হবে।

সমাবেশ শেষে আওয়ামী লীগ ও তাদের অঙ্গ-সংগঠন হরতাল বিরোধি মিছিল বের করে। মিছিলটি দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে ডিসি হিল ও লালদিঘী হয়ে কোতোয়ালী এলাকায় শেষ হয়।

 

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এডভোকেট সুনীল কুমার সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, ওয়াকার্স পার্টির জেলা সভাপতি এডভোকেট আবু হানিফ, সাম্যবাদী দলের অমূল্য বড়ুয়া, গণ আজাদী লীগের আহ্বায়ক মাওলানা নজরুল ইসলাম আশরাফী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, শফিক আদনান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য আবুল মনসুর, গৌরান্দ চন্দ্র ঘোষ, অমল মিত্র, বখতেয়ার উদ্দিন খান, কোতোয়ালী থানা সভাপতি আলহাজ্ব ফিরোজ আহমেদ, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফরিদ মাহমুদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আলহাজ্ব শের মোহাম্মদ, ফয়েজ উল্লাহ বাহাদুর, ওয়ার্ড কাউন্সিলর তারেক সোলায়মান সেলিম, হাসান মুরাদ বিপ্লব, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরল আজিম রনি।

মতামত