টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

বিপিএলে থাকছেন না শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটাররা

চট্টগ্রাম, ১০ নভেম্বর (সিটিজি টাইমস):  গত আসরে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) না পাওয়ায় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) খেলতে আসেনি পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। এবারও আসর শুরু হওয়ার আগে আসলো আঘাত। এবার শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের পাওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিলতা। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের সঙ্গে কেন্দ্রীয় চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়দের বিপিএলে খেলার জন্য অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেবে না তারা।

শ্রীলঙ্কা তাদের খেলোয়াড়দের ঘরোয়া ওয়ানডে টুর্নামেন্টে খেলাতে চায়। তাই বিপিএলে তাদের খেলোয়াড়দের খেলতে দেয়া হবে না প্রসঙ্গে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘আগামী ২৭ নভেম্বর নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে খেলোয়াড়রা। আর যারা কেন্দ্রীয় চুক্তিতে আছে কিন্তু নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে না, তারা দেশে থাকবে এবং ঘরোয়া টুর্নামেন্টে খেলবে। এই টুর্নামেন্ট শুরু হবে ২০ নভেম্বর থেকে। তাই কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটাররা অনুমতি পাবে না।’

এদিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা তাদের এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করবে। আশা করি শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটাররা বিপিএলে খেলবেন। আগামী কয়েক দিনে এসএলসি ক্রিকেটারদের অনাপত্তিপত্র দেবে।’

বিপিএল গর্ভনিং কাউন্সিল এসএলসির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ১৭ খেলোয়াড়সহ মোট ২৫ জন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটারকে অনাপত্তিপত্র দেওয়ার অনুরোধ জানায়।

কেন্দ্রী চুক্তির আওতায় যেসব খেলোয়াড়দের মধ্যে বরিশাল বুলসে খেলছেন সিকুগে প্রসন্ন, চিটাগং ভাইকিংসে চামারা কাপুগেদারা ও জীবন মেন্ডিস, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে লাহিরু থিরিমান্নে ও নুয়ান কুলাসেকারা, রংপুর রাইডার্সে থিসারা পেরেরা ও সচিত্র সেনানায়েকে, সিলেট রয়্যালসে অজান্তা মেন্ডিস।

তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ায় খেলা নিয়ে কোনো শঙ্কা নেই ঢাকা ডায়নামাইটসের শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার কুমার সাঙ্গাকারার।

সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের ঘরোয়া টুর্নামেন্টের মান নিশ্চিত করতে এবং ক্লাবগুলো যেন পুরো মৌসুম সেরা খেলোয়াড়দের পায় তা নিশ্চিত করতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত