টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মুক্তিযুদ্ধ ও ৭ নভেম্বরের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে জাতিকে রক্ষা করতে হবে – লুৎফুর রহমান কাজল

BNP-COXSBAZARচট্টগ্রাম, ০৭  নভেম্বর (সিটিজি টাইমস):   বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সদর রামু আসনের সাবেক সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজল বলেছেন, ১৯৭৫ সালে ৭ নভেম্বর সিপাহী জনতার বিপ্লবের মাধ্যমে এদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আধিপত্যবাদীদের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছিল। সেদিন সিপাহী-জনতা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানকে ক্যান্টনমেন্টের বন্দিদশা থেকে মুক্ত না করলে এদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব বলে কিছু থাকত না। সেই বিপ্লবের মাধ্যমে জাতি পরিত্রান পেয়েছে। অথচ বর্তমান সরকার ৭ নভেম্বরের চেতনাকে ধ্বংস করে স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে ষড়ষন্ত্র শুরু করেছে। তিনি রাষ্ট্রীয়ভাবে সিপাহী-জনতার বিপ্লব দিবস ৭ নভেম্বর পালনের আহবান জানিয়ে সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, সিপাহী ও জনতার এই ঐতিহাসিক বিপ্লবকে অবহেলার মাধ্যমে আ্ওয়ামীলীগ স্বাধীনতা বিরোধীদের প্রশ্রয় দিচ্ছে। তিনি বলেন, দেশ এখন সর্বগ্রাসী সংকটে নিপতিত। মানুষ আজ সংশয় ও শস্কার মধ্যে সময় অতিবাহিত করছে। এই অবৈধ সরকার ৫ জানুয়ারীর ভোটার বিহীন নির্বাচনের মধ্য দিয়ে মানুষের বাক-ব্যক্তি ও মত প্রকাশের স্বাধীনতাকে গলাটিপে হত্যা করে দেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা চালু করেছে। তিনি আওয়ামীলীগের হাতে দেশের গণতন্ত্র ও আইনের শাসন নিরাপদ নয় মন্তব্য করে বলেন, সুষ্ট নির্বাচনের মাধ্যমে আওয়ামীলীগ কোনদিনও এদেশের রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসতে পারবেনা। তা বুঝতে পেরে প্রধানমন্ত্রীসহ শাসকদলের গোটা নেতৃত্ব বেসামাল ও দিশেহারা হয়ে এখন দেশ বিরোধী ষড়ষন্ত্র শুরু করেছে। একটি গণতান্ত্রিক দেশে ফ্যাসিবাদের এমন উলঙ্গ চেহারা জনগণ আর কখনো দেখেনি উল্লেখ করে তিনি আর্ওো বলেন, রাজনীতির পরিক্রমায় দেশের ভাগ্য আজ নির্ভর করছে জাতীয়তাবাদীদের উপর। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আন্দোলনের মাধ্যমেই এই অগণতান্ত্রিক সরকারের অবসান ঘটাতে, ৭ নভেম্বরের চেতনাকে বুকে ধারন করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজপথে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য প্রস্তত থাকার আহবান জানান বিএনপি’র এই কেন্দ্রীয় নেতা।

কক্সবাজার জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আরা স্বপ্নার সভাপতিত্বে ও প্রচার সম্পাদক অধ্যাপক আকতার চৌধুরীর সঞ্চালনায় শনিবার বিকেলে সার্কিট হাউস রোডস্থ জেলা বিএনপি কার্যালয় চত্বরে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপি সহ-সভাপতি ও পৌর বিএনপি সভাপতি আলহাজ্ব রফিকুল হুদা চৌধুরী , জেলা বিএনপি যুগ্ম সম্পাদক এড: আবু ছিদ্দিক উসমানী , শ্রমিক দল সভাপতি প্যানেল মেয়র রফিকুল ইসলাম , জেলা মৎস্যজীবি দল সভাপতি হামিদ উদ্দিন ইউসুফ গুন্নু , কেন্দ্রীয় যুবদল সদস্য এম মোকতার আহমদ , জেলা যুবদল সভাপতি ছৈয়দ আহমদ উজ্জল , জেলা সেচ্ছাসেবক দল সাধারণ সম্পাদক এড: মোহাম্মদ ইউনুছ , জেলা যুবদল সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আমীর আলী , জেলা ছাত্রদল সভাপতি রাশেদুল হক রাশেল , সাধারণ সম্পাদক মনির উদ্দিন , সদর যুবদল সভাপতি ফরিদুল আলম ,সিটি কলেজ ছাত্রদল আহবায়ক সাইফুর রহমান নয়ন , দোলন ধর ।

উপস্থিত ছিলেন , ছাত্রদল নেতা সরওয়ার রোমন ,আলাউদ্দিন রবিন ,মোহাম্মদ ইলিয়াছ , ফাহিমুর রহমান , আনিসুর রহমান , আনোয়ার হোসেন টিপু , শামসুল আলম , এএইচএম রায়হান উদ্দিন, শ্রমিক দল নেতা মো: আলমগীর , এস্তাক আহমদ , ইকবাল হোসেন , আবদু শুক্কুর আজাদ , নুরুল ইসলাম সওদাগর , আনোয়ার হোসেন , মো: আলী , মো: আজিজ , আনিস উদ্দিন , মো: কালু প্রমুখ। কোরআন তেলায়াত করেন বিএনপি নেতা নুরুল আলম।

মতামত