টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

জঙ্গিবাদের প্রশ্রয়দাতাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী

চট্টগ্রাম, ০৬  নভেম্বর (সিটিজি টাইমস):  নেদারল্যান্ড সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জঙ্গিবাদ ও মৌলবাদকে নিয়ে বাংলাদেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে চায় ষড়যন্ত্রকারীরা। যারা জঙ্গিবাদ ও মৌলবাদকে প্রশ্রয় দেয় তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জাতিসংঘের পরিবেশ বিষয়ক সর্বোচ্চ পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়ন অব দ্যা আর্থ’ লাভ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য আয়োজিত গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ, তাদের অঙ্গ সংগঠন ও প্রবাসী বাঙালিদের পক্ষ থেকে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়।

হেগ শহরের হোটেল কুর হাউসে অনুষ্টিতেএ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে। বাংলাদেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে যারা পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে মেরেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

তিনি জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে সারা বিশ্বের নেতৃবৃন্দকে কাজ করার আহবান জানান।

আগামীতে নতুন নতুন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘অতীতে যেমন ষড়যন্ত্র হয়েছে তেমনি এখনও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে দেশকে পিছিয়ে দিতে চায় ষড়যন্ত্রকারীরা। কিন্তু আমি নিজের জীবন উৎসর্গ করে হলেও বাংলাদেশের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করে যাব।’

নেদারল্যান্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি জনাব মায়ীদ ফারুকের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা জামানের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম বীরপ্রতিক, ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশগুপ্ত, সাধরণ সম্পাদক এমএ গনি, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান শরীফ, নেদারল্যান্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান প্রমুখ।

সভায় উপস্থিত চ্ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ- সভাপতি জালাল উদ্দিন, এমএ হাশেম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাইনুদ্দিন রিয়াদ, আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. সাজ্জাদ হায়দার, সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শামিম হক, এম নজরুল ইসলাম, মুজিবর রহমান হাসনাত মিয়া, জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি বশিরুল হক সাবু, সাধারণ সম্পাদক শেখ বাদল আহমেদ, ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী মোল্লা লিংকন, সাধারণ সম্পাদক ড. বিদ্যুত বড়ুয়া, সহ সভাপতি ইকবাল হোসেন মিঠু, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের এম নাজিম উদ্দিন, সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মো আবুল কাশেম, ইতালি আওয়ামী লীগের সভাপতি ইদ্রিস ফারাজী, সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল, এম রব মিন্টু, স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাকিল খান পান্না, আতাউর রহমান আতা, পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি রফিকউল্লাহ, পর্তুগাল সহ-সভাপতি মহসীন হাবিব ভুইয়া, রফিকুল ইসলাম বাবলু, বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রশিদ বুলু, শহিদুল হক, সাধারণ সম্পাদক পলিন মনির, সুইডেন আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আম্বিয়া ঝন্টু, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির, সহ-সভাপতি ড. ফরহাদ আলী খান, রানাখান, অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান হাফিজ, যুক্তরাজ্য আওয়ামী যুব লীগের সভাপতি ফখরুল ইসলাম মধু, সধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদ খান, সুইডেন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক যোবায়দুল হক সবুজ, বেলজিয়াম আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি এমএম মোর্শেদ প্রমুখ।

মতামত