টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

এসএসসি পাস করেই বিশেষজ্ঞ ডাক্তার!

dচট্টগ্রাম, ০২  নভেম্বর (সিটিজি টাইমস)::নামের পাশে ডিগ্রির অভাব নেই, অভাব নেই অভিজ্ঞতা সার্টিফিকেটেরও, ম্যাজিস্ট্রেট দেখেই অভিজ্ঞ ডাক্তারের ভোঁ-দৌড়ে হেসে লুটোপুটি খেয়েছেন অনেকেই!

নগরীর চান্দগাঁও থানার বাংলা বাজার, সিএন্ডবি ও বাদুরতলা এলাকায় কেবল এসএসসি পাশ করেই বিশেষজ্ঞ ডাক্তার সেজে সরল রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন। নামের আগে ডাক্তার যোগ করে বেশ কয়েকটি ডিগ্রিও জুড়ে দিয়েছেন।

অভিযান টের পেয়ে এক ভুয়া চিকিৎসক পালিয়ে যাওয়ার পর তার চেম্বার সিলগালা করে দিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আরেক ভুয়া চিকিৎসককে মুচলেকা নিয়ে চেম্বার সিলগালা ও জরিমানা করে ছেড়ে দেয় আদালত।

ভুয়া ওই চিকিৎসরা হলেন- বসু দেব দত্ত, সিরাজদৌল্লা চৌধুরী।

সোমবার বিকালে নগরীর চান্দগাঁও খানার বরিশাল বাজার ও সিঅ্যান্ডবি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রুহুল আমিন জানান, অভিযান দল বরিশাল বাজার এলাকায় গেলে বসু দেব দত্ত তার চেম্বার ফেলে পালিয়ে যান।

“সেখানে বিক্রয় নিষিদ্ধ সরকারি ওষুধ পাওয়া গেছে। চিকিৎসক হিসেবে তার কোনো সনদ নেই। আমরা চেম্বার সিলগালা করে দিয়েছি।”

চান্দগাঁওয়ের সিঅ্যান্ডবি এলাকায় আরেক এক ভুয়া চিকিৎসকের সন্ধান পেয়ে সেখানেও অভিযানে যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রুহুল বলেন, “সিরাজদৌল্লা চৌধুরী নামের ওই ব্যক্তির চেম্বার সিলগালা করে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। তার কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়েছে। সে আর কখনো চিকিৎসক হিসেবে চেম্বারে বসবে না।”
তিনি এসএসসি পাশ বলেও জানান ম্যাজিস্ট্রেট।

এর আগে গত ১০ অক্টোবর একই ভ্রাম্যামাণ আদালত নগরীর বাকলিয়া থানার হাফেজ নগরের তুলাতুলি এলাকায় গেলে পাঁচটি ফার্মেসির মালিক দোকান ফেলে পালিয়ে যান।

এদিকে বরিশাল বাজারের অভিযানে জে এম পি ফার্মেসিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, বাদুরতলা এলাকার বিনয় ফার্মেসিকে তিন হাজার টাকা ও দিপ্ত ফার্মেসিকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করে আদালত।

ভারতীয় ওষুধ, বিক্রি নিষিদ্ধ সরকারি ওষুধ ও ফিজিশিয়ানস স্যাম্পল বিক্রির অপরাধে এসব জরিমানা করা হয় বলে জানান ম্যাজিস্ট্রেট রুহুল।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত