টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

দেশের ভাবমূর্তি নষ্টের চক্রান্ত : চট্টগ্রামে তোফায়েল

unnamed-34চট্টগ্রাম, ২৫ অক্টোবর (সিটিজি টাইমস): দেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্থ করতে ষড়যন্ত্র চলছে বলে মন্তব্য করে বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বাংলাদেশের সর্বত্র শারদীয় দূর্গাপূজা ভালোভাবে সমাপ্ত হয়েছে। কিন্তু তাজিয়া মিছিলের মতো একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে হামলা হলো। যারা অর্থনীতি আর রাজনীতিতে বাংলাদেশকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারেনি তারা এখন আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে এই হামলা চালিয়েছে।”

রবিবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে চট্টগ্রামের পলোগ্রাউন্ড মাঠে নবম আন্তর্জাতিক উইমেন্স এসএমই এক্সপো বাংলাদেশ ২০১৫’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বানিজ্যমন্ত্রী একথা বলেন।

চিটাগাং উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি কামরুন মালেকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আজম নাছির উদ্দীন এবং মহিলা সংসদ সদস্য ওয়াসেকা আয়েশা খান এমপি।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, বাংলাদেশ এখন মাথা উচুঁ করে এগিয়ে যাচ্ছে। সকল খাতে আশপাশের অন্যান্য দেশের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে।

অর্থনৈতিকভাবে পাকিস্তান ও সামাজিকভাবে ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। এমনকি নারীর ক্ষমতায়নের জন্যও পুরষ্কার পাচ্ছে।

“আশুরার মিছিলে একজনকে মেরে, পঞ্চাশ ষাটজনকে আহত করা হয়েছে, দুইজন বিদেশীকে মারা হয়েছে,যারা আন্দোলন সংগ্রামে ব্যথ হয়েছে, যারা রাজনীতেকে বাধ গ্রস্ত করতে পারেনি, অথনীতিকে বাধা গ্রস্ত করতে পারেনি তারা দেশের ভাবমূতি নষ্টের চেষ্টা বরছে, কোন ষড়যন্ত্রই আমাদের অগ্রগতিকে ব্যহত করতে পারবেনা, উল্লেখ করেন তোফায়েল আহমদ।

উইমেন্স এক্সপো’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী ঘোষণা দেন, বিদেশে রপ্তানির জন্য মহিলা উদ্যোক্তাদের পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত ছয় শতাংশ সুদে হারে ঋণ দেয়া হবে। এছাড়া বিদেশের কোনো মেলায় অংশ নিলে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত খরচ রপ্তানী উন্নয়ন বূরো ইপিবি বহন করবে।

এর আগে বিকেল তিনটার দিকে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে মেলার উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দ্যা ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র (এফবিসিসিআই) সভাপতি মাহবুবুল আলম, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুস ছালাম, এফবিসিসিআই’র পরিচালক মনোয়ারা হাকিম আলী, বিজিএমই’র প্রথম সহ-সভাপতি মঈনুদ্দিন মিন্টু, বাংরাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মিজানুর রহমান জোতদার প্রমুখ।

মতামত