টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

‘সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ড, দুয়েক মাসেই সুরাহা’: চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা

Press-club-brief-Iqbal-sobaচট্টগ্রাম, ১৭  অক্টোবর (সিটিজি টাইমস):   বহুল আলোচিত সাংবাদিক দম্পতি সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যাকাণ্ড রহস্য আগামী দুয়েক মাসের মধ্যে সুরাহা হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘বিষয়টি আদালতে বিচারাধীন, তদন্তের মধ্যে আছে তাই বেশি কিছু বলা যাচ্ছে না। শুধু এটুকু বলব, দুয়েক মাসের মধ্যে সাগর-রুনি হত্যা মামলা নিয়ে সুসংবাদ পাবেন।’

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় শনিবার তিনি এ তথ্য জানান।

সভায় জাতীয় প্রেস ক্লাব ও চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের মধ্যে মেলবন্ধন ঘটিয়ে সাংবাদিকদের এক করা এবং চট্টগ্রামের সাংবাদিকরা যাতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সুবিধা গ্রহণের সুযোগ পান তার ব্যবস্থা করার আশ্বাস দেন চট্টগ্রামে সফররত জাতীয় সাংবাদিক নেতারা।

ইকবাল সোবহান চৌধুরীর নেতৃত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন পিআইবির চেয়ারম্যান ও সমকাল সম্পাদক গোলাম সরওয়ার, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, বিএফইউজে একাংশের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোল্লা জালাল ও ডিইউজের একাংশের সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ।
চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব সভাপতি কলিম সরওয়ারের সভাপতিত্বে সভায় স্বাগত ভাষণ দেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মহসিন চৌধুরী। ক্লাবের যুগ্ম-সম্পাদক চৌধুরী ফরিদের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক, পূর্বকোণ সম্পাদক স্থপতি তসলিম উদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি এজাজ ইউসুফী, সিইউজে’র সাবেক সভাপতি শহীদ উল আলম ও এম নাসিরুল হক, সাংবাদিক কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির সভাপতি মঈনুদ্দিন কাদেরি শওকত, সিইউজের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী ও নাজিমউদ্দিন শ্যামল, সিইউজে’র যুগ্ম-সম্পাদক ম. শামসুল ইসলাম।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. শফিকুর রহমান বলেন, ‘চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আমরা বঙ্গবন্ধুর ছবি দেখি। কিন্তু জাতীয় প্রেস ক্লাবে বঙ্গবন্ধু দূরের কথা, একসময় জাতীয় পতাকাই উড়ানো হতো না। ২৬ মার্চ ও ১৬ ডিসেম্বর পালন করা হতো না। আমরা বিজয় দিবসে, স্বাধীনতা দিবসে গিয়ে জবরদস্তি করে জাতীয় পতাকা তুলতাম। জাতীয় প্রেস ক্লাব যাতে সবার জন্য অবাধ হয় সেজন্য সংবিধান সংশোধনের প্রয়োজন আছে। তবে, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের কর্মকর্তা ও সাংবাদিকরা সব সময় জাতীয় প্রেস ক্লাবে তার কক্ষে যেতে পারবেন।’

মতামত