টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

যে কারণে মিরসরাইয়ের দুর্ঘটনা, প্রাণ গেল ৭ জনের

চট্টগ্রাম, ১১ অক্টোবর (সিটিজি টাইমস):  চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চালবাহী ট্রাক খাদে পড়ে সাতজন নিহত এবং ছয়জন আহত হয়েছেন।একটি সূত্র জানিয়েছে, ট্রাক চালকের চোখে ছিল ঘুম।চলন্ত অবস্থায়ই তিনি বার বার ঘুমিয়ে পড়ছিলেন। ঐ অবস্থায়ই তিনি অতিরিক্ত চালবোঝাই ট্রাকটি চালিয়ে গন্তব্যে যাচ্ছিলেন। এক পর্যয়ে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়।

সোমবার ভোর সোয়া ৫টার দিকে জোরারগঞ্জ থানার দক্ষিণ সোনা পাহাড়ের গড়তাকিয়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- কালাম মিয়া (৪৫), সাইদুর (৪০), রুবেল (২৫), টিপু (৪৫), মনিরুদ্দিন (৪৫), আলম (৩০), আজাদ (২৫)।  এদের মধ্যে একজনের বাড়ি বগুড়ায়। অন্যরা সবাই নওগাঁর বাসিন্দা

বিষয়টি নিশ্চিত করে হাইওয়ে পুলিশের (চট্টগ্রাম) এএসপি গোলাম মোহাম্মদ  বলেন, ‘নওগাঁ থেকে চালবাহী একটি ট্রাক চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ যাচ্ছিল। ট্রাকটি জোরারগঞ্জের দক্ষিণ সোনা পাহাড়ের গড়তাকিয়া নামক স্থানে আসার পর খাদে পড়ে যায়। এসময় ট্রাকের ওপরে থাকা ১৩ জন চালের বস্তার চাপা নিচে চাপা পড়ে গুরুতর আহত হয়। এদের মধ্যে ঘটনাস্থলেই সাতজন মারা যান। অন্যদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।’

এএসপি গোলাম মোহাম্মদ আরো বলেন, ‘উদ্ধার যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানতে পেরেছি, চালক লম্বা ভ্রমণের কারণে চোখে ঘুম থাকায় ট্রাকটি খাদে নামিয়ে দেয়। ঘটনার পরপরই চালক ও তার সহযোগি পলাতক রয়েছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।’

এদিকে দুর্ঘটনাকবলিত ট্রাকের যাত্রী শাহ আলম বলেন, ‘আমরা তিনশ’ টাকা চুক্তিতে মোট ১৩ জন চালের ট্রাকটিতে করে নওগাঁ থেকে চট্টগ্রাম আসছিলাম। এরমধ্যে দুর্ঘটনায় ট্রাক খাদে পড়ে সাতজন নিহত হয়। আমিসহ চারজন খাদ থেকে উঠে ঘটনাস্থলে রয়েছি। তবে চালক, সহযোগি ও অন্য এক যাত্রীকে ঘটনাস্থলে পাওয়া যাচ্ছেনা। আমাদের ধারণা, তিনজনই ঘটনার পর পালিয়ে গেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এমনিতে নওগাঁ থেকে চট্টগ্রাম আসার ভাড়া ১ হাজার টাকা। তবে চালের ট্রাকে করে তিনশ’ টাকায় আসতে পারায় চট্টগ্রাম যাওয়ার উদ্দেশ্যে আমরা ১৩ জন চালভর্তি ট্রাকের ওপর উঠে যাত্রা করি। রোববার সকালে ট্রাকটি নওগাঁ থেকে রওনা দেয়।’

মতামত