টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

মিরসরাইয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা, স্বামী আটক

এম মাঈন উদ্দিন
মিরসরাই প্রতিনিধি 

চট্টগ্রাম, ১১ অক্টোবর (সিটিজি টাইমস): মিরসরাইয়ের জোরারগঞ্জ থানাধিন সোনাপাহাড় গ্রামে রুমা আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গতকালের এই ঘটনায় পুলিশ তার স্বামী বাসচালক রায়হানকে (৩০) আটক করেছে।

জোরারগঞ্জ থানার ৩নং জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের উত্তর সোনাপাহাড় এলাকায় স্থানীয় ফারুকের ভাড়াটে বাসায় এই ঘটনা ঘটে। পাশের ঘরের ভাড়াটে ছালমা জানান, প্রায় ১ বছর যাবত তারা স্বামী স্ত্রী এবং তাদের ১ বছরের কন্যা শিশু সুমাইয়াকে নিয়ে এখানে রয়েছেন। রায়হানের বাড়ী ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া উপজেলায় এবং রুমার বাড়ী উপজেলার জোরারগঞ্জ থানাধীন ৫নং ওচমানপুর ইউনিয়নের মুহুরী প্রজেক্ট এলাকায়। তাদের দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে উভয়ের অভিভাবক মিলে তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে দেন। এছাড়াও তার স্বামী ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে বাসের চালক বলে অধিকাংশ সময় বাইরে থাকত। ১৫ কি ২০ দিন পর পর বাসায় আসত। এদিকে রুমা তার মেয়েকে নিয়ে একাই থাকত। ঘটনার প্র্রায় সপ্তাহ খানেক আগে পারিবারিক বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছিল।

ঘটনার দিন স্বামী রায়হানকে রান্নার জন্য কাঁচা বাজার আনার কথা বললে, রায়হান বাজারে গিয়ে তার হেলপারের মাধ্যমে বাজার করে পাঠায়। ইতিমধ্যে মধ্যে রুমা ঘরে ঢুকে ভেতরের দরজা বন্ধ করে মেয়েকে খাটের উপর বসিয়ে গলায় রশি বেঁধে ঘরের তীরের সাথে ঝুলে থাকে। এদিকে রায়হানের হেলপার বাজার নিয়ে এসে বার বার ডাকাডাকি করলেও ভেতর থেকে কোন শব্দ শুনতে না পেয়ে পাশের ঘরের বাসিন্দাদের জানালে, তারাও একই চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে জানালার কপাট খুলে দেখে ভেতরে তীরের সাথে রুমার লাশ ঝুলছে। এসময় তারা তার স্বামী রায়হানকে মুঠোফোনে তাগিদ দিয়ে বাসায় আসতে বলে। পরে রায়হান বাসায় এসে দরজা ভেঙে স্ত্রীর লাশ নামিয়ে আনে। পরবর্তীতে জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজলু ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় আনে এবং তাৎক্ষণিক রুমার স্বামী রায়হানকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
জোরারগঞ্জ থানার ওসি জাহিদুল কবির বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যাই দেখা যাচ্ছে। এরপরও নিহতের স্বামী বিভিন্ন সময় তাকে মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন করতো বলে অভিযোগ থাকায় বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখবো।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত