টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

সারাদেশে বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশ

চট্টগ্রাম, ০৪ অক্টোবর (সিটিজি টাইমস): দেশের বিভিন্নস্থানে অবস্থানকারী বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তা জোরদারের নির্দেশ দিয়েছেন আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক। শনিবার পুলিশ সদর দফতরে এক জরুরি বৈঠকে তিনি এ নির্দেশ প্রদান করেন।

গত ২৮ সেপ্টেম্বর রাজধানীর গুলশানে ইতালীয় নাগরিক তাবেলা সিজারকে গুলি করে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। আর ওই ঘটনার পাঁচ দিনের মাথায় শনিবার রংপুরে একই স্টাইলে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন জাপানি নাগরিক হোসি কোমিও। এ অবস্থায় বাংলাদেশে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তা কীভাবে নিশ্চিত করা যায় সে ব্যাপারে জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা। আইজিপি বিদেশি নাগরিকদের কর্মস্থল ও আবাসনস্থলে সার্বক্ষণিক নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করেন। পাশাপাশি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সঙ্গে সমন্বয় করে তথ্য সংগ্রহেরও নির্দেশ দেন।

বৈঠকে পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে শহীদুল হক বলেন, ‘সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ন্ত্রণে পুলিশ অতীতে যে সাফল্য দেখিয়েছে, বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সেই ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।’ তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, তাবেলা সিজার ও হোসি কোমিও‘র হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।’

বৈঠকে উপস্থিত এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘রাজধানীর গুলশান, বনানী ও বারিধারা এলাকায় নিরাপত্তা আগেই জোরদার করা হয়েছে।’

চট্টগ্রামে সতর্ক পুলিশ

চট্টগ্রামে বসবাসরত বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তায় বিশেষ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে পুলিশ। চাকরি বা ব্যবসায়িক কারণে চট্টগ্রামে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিক এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত বিদেশি ছাত্রদের তালিকা তৈরি করে তাদের নিরাপত্তার দিকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। নগরীতে বিদেশি নাগরিক প্রবেশের ক্ষেত্রে আগে থেকে নগর পুলিশের বিশেষ শাখাকে অবহিত করতে বলা হয়েছে। বিদেশি নাগরিকদের অবস্থানের বিষয়ে নিয়মিত তথ্য দিতে আবাসিক হোটেলগুলোকে অনুরোধ করা হয়েছে। এছাড়া নগরীর খুলশী, হালিশহর, ওআর নিজাম রোড, ইপিজেড, আগ্রাবাদ, চট্টগ্রাম বন্দর এলাকাসহ যেসব এলাকায় বিদেশিদের বসবাস ও চলাচল বেশি, সেসব এলাকায় পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা চেকপোস্ট বসানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) দেবদাস ভট্টাচার্য ইত্তেফাককে বলেন, ‘চট্টগ্রামে প্রায় আড়াই থেকে তিন হাজার বিদেশি নাগরিক বসবাস করেন। বিদেশিদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সবসময় বাড়তি গুরুত্ব দেয়া হয়।’

খুলনায় বিদেশিদের নিরাপত্তায় বিশেষ ব্যবস্থা:

খুলনায় বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তার ব্যাপারে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। খুলনা জেলায় অবস্থানরত ৫৯ জন বিদেশি নাগরিকের যাতায়াত ও প্রতিদিনের অবস্থান জানাতে এবং নিরাপত্তা দিতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বিদেশি নাগরিকরা বিভিন্ন চার্চ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সেবামূলক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে কর্মরত। এসব নাগরিক যুক্তরাষ্ট্র, কোরিয়া, ইতালি, চীন, জাপান ও থাইল্যান্ডের অধিবাসী। খুলনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোয়েন্দা) সিএ হালিম জানান, বিদেশি নাগরিকদের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা দিতে থানা ও ফাঁড়ির পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

কেএমপি’র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার শেখ মনিরুজ্জামান খান মিঠু জানান, খ্রিস্টানদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও এনজিও’তে কর্মরত বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তা দিতে সব থানা পুলিশকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তাদের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখতে বলা হয়েছে।

মতামত