টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

ফুটবল খেলতে না এলে বিপদে পড়বে অস্ট্রেলিয়া

চট্টগ্রাম, ০৩ অক্টোবর (সিটিজি টাইমস):  ক্রিকেটের মতো বাংলাদেশের বিপক্ষে সামনের ফুটবল ম্যাচটি বাতিল করলে কিংবা নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার বায়না ধরলে বড় ধরনের ‘বিপদে পড়বে’ অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন যদি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচটি খেলতে রাজি না হয়, সেক্ষেত্রে বড় অঙ্কের জরিমানা গুনতে হবে অজিদের। শুধু তাই নয়, এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনে তাদের সদস্যপদও হুমকির মুখে পড়তে পারে। কেননা এই অঞ্চলের অনেক দেশ আগে থেকেই চায় না, অস্ট্রেলিয়া এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনে থাকুক। এবার যদি বাংলাদেশ তাদের বিপক্ষে চলে যায়, তবে পরিস্থিতি সামলানো কঠিন হবে সকারুদের জন্য।

১৭ নভেম্বর ঢাকায় মামুনুলদের মুখোমুখি হওয়ার কথা অস্ট্রেলিয়ার। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে গ্রুপের প্রতিটি দল দুইবার করে একে অপরের মুখোমুখি হয়। একবার নিজেদের মাঠে, আরেকবার প্রতিপক্ষের মাঠে। গত মাসের তিন তারিখ অস্ট্রেলিয়ায় খেলে এসেছে বাংলাদেশ।

সূত্র বলছে, ক্রিকেট সফর স্থগিত হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার ফুটবল ফেডারেশনও বাংলাদেশে আসতে চাইছে না। তারা ইতিমধ্যে ফিফার দ্বারস্থ হয়েছে। সকারুরা চাইছে, ঢাকার ম্যাচটি নিরপেক্ষ কোনো ভেন্যুতে খেলতে।

তবে ফিফার নিয়ম বলছে, বাংলাদেশ যদি অস্ট্রেলিয়ার সিদ্ধান্তে রাজি না হয়, তবে দেশটিকে বড় অঙ্কের জরিমানা গুনতে হবে।

দেশের ফুটবল বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাংলাদেশের জন্য অস্ট্রেলিয়ার এমন সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া সম্ভব নয়। এমন কোনো পরিস্থিতি দেশে তৈরি হয়নি, যাতে অন্যদেশে ম্যাচ খেলতে হবে।

আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া এবং ইয়েমেন তাদের বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচ নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলেছে। কিন্তু এসব দেশের পরিস্থিতি বাংলাদেশের তুলনায় বহগুণ খারাপ। সেখানে যখন-তখন বোমা হামলা হয়।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া নিরপেক্ষ ভেন্যুর ধুয়ো তুলে ধোপে টিকতে পারবে না। কেননা এখানের পরিস্থিতি প্যালেস্টাইন-ইসরায়েলের মতো নয়। দেশগুলোর সঙ্গে আমাদের তুলনাও চলে না।’

‘ফিফা যদি অস্ট্রেলিয়ার বায়না মেনে নেয়, তবে সেটা হবে বিস্ময়ের। অস্ট্রেলিয়া ফিফার কাছে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে ম্যাচ খেলার প্রস্তাব দিলে, ফিফা থেকে নিরাপত্তা পরিদর্শক দল বাংলাদেশে আসবে। আমি মনে করি তারা সবকিছু স্বাভাবিকই দেখবেন।’ বলেন হেলাল।

২০১৩ সালে ঘানা ফিফার কাছে এমন প্রস্তাব দিয়েছিল। মিসরের রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে তারা দেশটি সফর করতে অসম্মতি জানায়। কিন্তু ফিফা ঘানার সেই প্রস্তাব নাকচ করে দেয়। ঘানাকে মিসরেই ম্যাচ খেলতে হয়।

অস্ট্রেলিয়া যদি ফিফার নির্দেশ অমান্য করে তখন কী হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে আনোয়ারুল বলেন, ‘সেক্ষেত্রে বিষয়টি দেখবে ডিসিপ্লিনারি কমিটি। বড় অঙ্কের জরিমানা গুনতে তো হবেই, সেই সঙ্গে তাদের পয়েন্ট কাটা হবে। যদি তাই হয়, তবে বিশ্বকাপে যায়গা পাওয়া কঠিন হবে তাদের জন্য।’

অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে গ্রুপ ‘বি’ তে নয় পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা জর্ডানের পয়েন্ট সাত। সকারুরা বাংলাদেশ ম্যাচ বাতিল করলে তাদের পয়েন্ট কাটা যাবে। সেক্ষেত্রে কিরগিজরা দ্বিতীয় স্থানে চলে আসবে। তাদের পয়েন্ট এখন চার। তখন টিম কাহিলদের একূল-ওকূল দুটোই যাবে। সবটাই নির্ভর করছে বাফুফের ওপর। অস্ট্রেলিয়ার নিরপেক্ষ ভেন্যুর বায়না চোখ বুঝে নাকচ করতে হবে। বাফুফে কি সেটা করবে?

একবার নয়, হয়তো শতবার!

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত