টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নানা আয়োজনে মানিকছড়িতে উন্নয়ন মেলা সম্পন্ন

আবদুল মান্নান
মানিকছড়ি  প্রতিনিধি

20150930_124156চট্টগ্রাম, ৩০ সেপ্টেম্বর (সিটিজি টাইমস): সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাফল্যতে নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে মানিকছড়িতে ৩ দিন ব্যাপি আয়োজিত উন্নয়ন মেলা গতকাল ৩০ সেপ্টেম্বর হয়েছে।

গত ২৮ সেপ্টেম্বরে ইউ.এন.ও যুথিকা সরকার ও উপজেলার চেয়ারম্যান ম্্রাগ্য মারমার নেতৃত্বে পরিষদ চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে ‘সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অব্যাহত সাফল্য ও একবিংশ শতাব্দির ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গিকার বাস্তবায়নে’ একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের সৌজন্যে দেশ ব্যাপি এ উন্নয়ন মেলা চলছে।

প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান এর সঞ্চলনায় উদ্বাধনীতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাক্ষিক মানিকছড়ি বার্তার সম্পাদক মো. মাঈন উদ্দীন। ইউ.এন.ও যুথিকা সরকার এর সভাপতিত্বে মেলার অনুষ্টানাদিতে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলার চেয়ারম্যান ম্্রাগ্য মারমা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের উপজেলা সমন্বয়কারী টিংকু চাকমা, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা উমা প্রসাদ বড়ুয়া, সহকারী শিক্ষা অফিসার সুভাশীষ বড়ুয়া, তিনটহরী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আতিউল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মো. কামরুল আলম, সমাজ সেবা কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. দিদার-উল ইসলাম, ও.সি মো. শফিকুল ইসলাম , সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. দিদারুল আলম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এম.এ. রাজ্জাক প্রমূখ। গতকাল ৩০ সেপ্টেম্বর সমাপনী পর্বে সাংস্কৃতিক অনুষ্টান ও পুরুস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন স্কুল শিক্ষাথী ও শিল্পকলা একাডেমীর উদ্যোগে সাংস্কৃতিক অনুষ্টান অনুষ্টিত হয়। পরে অতিথিরা অংশগ্রহনকারীদের মাঝে পুরুস্কার ও শিল্পকলা একাডেমীতে ২ লক্ষ টাকার সরঞ্জামাদি তুলে দেন। শিল্পকলা একাডেমীর পুরুস্কার গ্রহন করেন সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান ও প্রশিক্ষক টিটু বড়ুয়া।

পরে প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান ¤্রাগ্য মারমা সমাপনী বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সরকার প্রধান শেখ হাসিনার সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জনে ব্যাপক সফলতার কারণে দেশব্যাপি আয়োজিত এ উন্নয়ন মেলার মাধ্যমে তৃণমূলে তুলে ধরা হচ্ছে উন্নয়নের চিত্র । বিশেষ করে একটি বাড়ী, একটি খামার প্রকল্প, আশ্রয়ন প্রকল্প, ডিজিটাল বাংলাদেশ, শিক্ষা সহায়তা, নারীর ক্ষমতায়ন, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, কমিউনিটি ক্লিনিক ও মানসিক স্বাস্থ্য, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচীসহ যোগাযোগ, আই.সি.টি ও বিশ্ব জলবায়ু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাব মোকাবেলায় শেখ হাসিনা বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ট্রফি অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে আরো বলেন, দেশের রাজধানী থেকে তৃণমূলে সরকারের ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজের কারণে সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষমাত্রা অর্জন সক্ষম হয়েছে। ফলে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে মডেল হিসেবে মূল্যায়ন করছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে হলে তৃণমূলের কর্মকান্ড জনসম্মুখে উপস্থাপন করতে হবে। প্রত্যেকে স্ব স্ব কর্মস্থলে থেকে সরকারের ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার চ্যালেন্স মোকাবেলায় কাজ করতে হবে। তবেই দেশকে মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে বিশ্ব মঞ্চে স্বীকৃতি পাবে।

মতামত