টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

নদী থেকে পাঁচশতাধিক আইডিকার্ড উদ্ধার

ইমাম খাইর, কক্সবাজার ব্যুরো:
কক্সবাজার শহরের বাঁকখালী নদীতে ভাসছে হাজারো ভোটার আইডিকার্ড।
২৭ সেপ্টেম্বর রবিবার দুপুরে শহরের বিমানবন্দর সংলগ্ন নতুন ফিশারীঘাটপাড়া (মগচিতাপাড়া) পয়েন্ট থেকে থেকে ভাসমান পাঁচশতাধিক ভোটার আইডিকার্ড উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। এ নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে নানা প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।
খবর পেয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধারকৃত ভোটার আইডিকার্ডগুলো থানায় নিয়ে আসে।
এ সময় আরো অন্তত একহাজার আইডিকার্ড নদীতে ভাসমান অবস্থায় রয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে।
স্থানীয় শ্রমিকনেতা নুরুল আলম জানান, ‘নদীতে আইডিকার্ড ভাসমান অবস্থায় দেখে ছেলেদের দিয়ে কয়েকটি উদ্ধার করি।’
এর মধ্যে রয়েছে- জরিনা খাতুন, স্বামী নুরুল হক, মাতা সোনা বিবি, চৌফলদন্ডি, দক্ষিণ মাইজপাড়া, কক্সবাজার সদর, কক্সবাজার। আইডিকার্ড নং-২২১২৪১১৩০৮৪০৮।
আবছার, পিতা চাঁদ মিয়া, মাতা ধয়া খাতুন, চৌফলদন্ডি, দক্ষিণ মাইজপাড়া, কক্সবাজার সদর, কক্সবাজার। আইডিকার্ড নং-২২১২৪১১৪৯০৪১৬।
আব্দুর রহিম, পিতা কাশেম আলী, মাতা গোল চেহের বেগম, পশ্চিম চৌফলদন্ডি, কক্সবাজার সদর, কক্সবাজার। আইডিকার্ড নং-২২১২৪১১৪৮৯০৬৫।
আয়েশা বেগম, স্বামী মু. আলী, মাতা রাশেদা বেগম, খোনকারখিল, চৌফলদন্ডি, কক্সবাজার সদর, কক্সবাজার। আইডিকার্ড নং-২২১২৪১১৪৯৪১০৫।
তিনি বলেন, এরকম আরো অন্তত অর্ধশত ভোটার আইডিকার্ড স্থানীয়দের হাতে রয়েছে। তাছাড়া নদীতে ভাসছে হাজারো ভোটার আইডিকার্ড।
স্থানীয় বাসিন্দা সাইফুল ইসলাম, ফরিদুল আলম, আবছার, মনির, জাহাঙ্গীরসহ অনেকে জানায়, সকাল থেকে নদীতে ভাসছে হাজারো ভোটার আইডিকার্ড। কিছু উদ্ধার করলেও ভয়ে অনেকেই এসব আইডিকার্ড হাতে নিতে চাচ্ছেনা।
এ বিষয়ে জানতে কক্সবাজার সদরের নির্বাচন অফিসার বেদারুল আলমের মুঠোফোনে কল করেও রিসিভ করেননি।
জেলা নির্বাচন অফিসার মো. মেজবাউ উদ্দিনের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
এ কারণে নির্বাচন অফিস সংশ্লিষ্ট কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
এ বিষয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন বলেন, খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার আইডিকার্ডসমূহ জব্দ করা হয়েছে। তদন্ত করেই আসল রহস্য বের করা হবে।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত