টক অব দ্য চট্টগ্রাম
Ad2

চট্টগ্রামে চামড়া বেচাকেনায় বাধা পেলে ব্যবস্থা

চট্টগ্রাম, ২৩ সেপ্টেম্বর (সিটিজি টাইমস):  কোরবানির পশুর চামড়া বিক্রি ও পরিবহনে বাধা পেলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কর্তৃপক্ষ।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান) দেবদাস ভট্টাচার্য্য জানান, কোরবানির পশুর চামড়া স্বাধীনভাবে বিক্রিতে সহায়তা করতে পুলিশের পক্ষ থেকে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

চামড়া বিক্রি বা পরিবহনে কোন কেউ বাধা দিলে তা দ্রুত পুলিশকে জানানোর পরামর্শও দেন তিনি।

তবে ভৌগলিক কারণে চট্টগ্রাম থেকে দেশের বাইরে চামড়া পাচারের সম্ভাবনা কম বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এদিকে বুধবার বিকালে নগর পুলিশের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে চামড়া বিক্রি বা পরিবহনে বাধা পেলে নিকটস্থ থানায় এবং সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে যোগাযোগের নম্বরও দিয়ে দেওয়া হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

কর্মকর্তাদের নম্বরগুলো হল- অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (অপরাধ ও অভিযান): ০১৭১৩৩-৭৩২৩৭, উপ-কমিশনার (গোয়েন্দা): ০১৭৬৯-০৫৮১২৩, অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গোয়েন্দা): ০১৭১৩৩-৭৪৫৯৫, পুলিশ কন্ট্রোল রুম: ০১৬৭৯-১২৩৪৫৬, ০৩১-৬৩৯০২২, ০৩১-৬৩০৩৫২।

থানাগুলোর টেলিফোন নম্বর- কোতোয়ালি থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৫৬, ০৩১-৬১৯৯২২, ০৩১-৬৩০৫২১, বাকলিয়া থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৬১, ০৩১-৬১৬৩৪৬, চকবাজার থানা: ০১৭৬৯-৬৯০০৬৪, ০৩১-২৮৬০১৩, সদরঘাট থানা: ০১৭৬৯-৬৯০০৬৫, ০৩১-৬৩১৪১৪, পাঁচলাইশ থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৫৮,০৩১-৬৫২৫৯৭, খুলশী থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৬০, ০৩১-৬৫৫৫৩৭, বায়েজিদ বোস্তামী থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৬২, ০৩১-৬৮৩০৩৩, চান্দগাঁও থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৫৯, ০৩১-২৫৫১৩১৩, ডবলমুরিং থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৬৮,০৩১-৭১৫৭৮২, ০৩১-৭১৫৭৮৩, হালিশহর থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৬৯, ০৩১-৭১৫৭৯০, পাহড়তলী থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৪৩,০৩১-৭৫১৩৩৫, আকবরশাহ থানা: ০১৭৬৯-৬৯০০৬৬, ০৩১-২৭৭৩৮৫৫, বন্দর থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৬৭, ০৩১-৭২৮২৮৮, ইপিজেড থানা: ০১৭৬৯-৬৯০০৬৭, ০৩১-৭৪১১০০, পতেঙ্গা থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৭০, ০৩১-২৫০০০২৬, কর্ণফুলী থানা: ০১৭১৩-৩৭৩২৭১, ০৩১-৬৩৬৭৬৩।

ঈদের ছুটিতে শহরে যেকোন ধরনের চুরি রুখতে ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের পক্ষ থেকে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও জানান পুলিশ কর্মকর্তা দেবদাস।

আবাসিক এলাকাগুলোতে বিশেষ নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “ছুটির সময় এলাকায় অপরিচিত কাউকে দেখলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য এলাকার লোকজন এবং নিরাপত্তাকর্মীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।”

ব্যাংকগুলোতেও নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি নিরাপত্তারক্ষীদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

সিটিজি টাইমসে প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে আপনার মন্তব্য

মতামত